পাকিস্তানে বাস থেকে নামিয়ে ১৪ জনকে গুলি করে হত্যা

image_titleস্থানীয় সময় বৃহস্পতিবারের প্রথম প্রহরে রাত সাড়ে ১২ টা থেকে ১টা মধ্যে বেলুচিস্তানের ওরমারা এলাকার মাকরান উপকূলীয় মহাসড়কে ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে দ্য ডন।
দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর সূত্রগুলো ডনকে জানিয়েছে, সেনা পোশাক পরা প্রায় ১৫ থেকে ২০ জন অজ্ঞাত বন্দুকধারীর একটি দল করাচি থেকে গওয়াদরগামী পাঁচ থেকে ছয়টি বাস থামায়।
বুজি টপ এলাকায় বন্দুকধারীরা একটি বাস থামিয়ে যাত্রীদের পরিচয়পত্র পরীক্ষা করে, তারপর ১৬ জন যাত্রীকে বাস থেকে নামিয়ে নিয়ে যায় বলে সূত্রগুলো জানিয়েছে। 
এদের মধ্যে অন্তত ১৪ জনকে গুলি করে হত্যা করে।

দুই যাত্রী কোনোরকমে রক্ষা পান এবং তারাই পালিয়ে গিয়ে নিকটবর্তী আধাসামরিক বাহিনীর চেকপোস্টে খবর দেন।
আহত এই দুইজনকে ওরমারা হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ডন।
আধাসামরিক বাহিনী ও অন্যান্য আইনী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং তদন্ত শুরু করেন। তারা স্থানীয় নূর বক্স হোটেল থেকে নিহতদের মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেন। 
স্থানীয় কর্মকর্তারা এ হত্যাকাণ্ডের উদ্দেশ্য ও এর সঙ্গে জড়িতদের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেননি। তখনও পর্যন্ত নিহতদের পরিচয়ও শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।
২০১৫ সালেও বেলুচিস্তানের মাসটুং এলাকায় একই ধরনের একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল। ওই সময় সশস্ত্র ব্যক্তিরা করাচিগামী দুটি বাসের প্রায় ২৪ জন যাত্রীকে অপহরণ করে নিকটবর্তী পার্বত্য এলাকায় নিয়ে অন্তত ১৯ জনকে গুলি করে হত্যা করেছিল। 
গত সপ্তাহে বেলুচিস্তানের রাজধানী কোয়েটায় শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের ওপর চালানো এক সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছিল।