‘জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ’ মঙ্গলবার থেকে

image_titleপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন। ২০ এপ্রিল পর্যন্ত এই আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক সোমবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মো. মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলামসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার তৃণমূল পর্যায়ের জনগণের দোরগোড়ায় নিরাপদ ও মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে নানামুখী কার্যক্রম নিয়ে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।  এ সব কার্যক্রমের বিস্তৃতিসহ সার্বিক সেবা কার্যক্রম সম্পর্কে জনগণকে জানাতে এবং স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক ও সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে এই কর্মসূচি। এ সব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে স্বাস্থ্যসেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার প্রতিপাদ্য সামনে রেখে সপ্তাহব্যাপী জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ উদযাপনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, বলেন জাহিদ মালেক।সেবা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে জাতীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নানামুখী কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শোভযাত্রা, ক্রোড়পত্র প্রকাশ, তথ্যচিত্র প্রদর্শন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা স্বাস্থ্যসেবা, টেলিভিশনে প্রচার প্রচারণা, স্বাস্থ্য বিষয়ক সেমিনার, স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, চিকিৎসাসেবায় নৈতিকতা বিষয়ক আলোচনা, স্বাস্থ্য সচেতনতা ও পুষ্টি বিষয়ক আলোচনা।জাতীয় পর্যায়ের সঙ্গে সমন্বয় রেখে জেলা ও উপজেলা পর্যায়েও একই ধরনের কর্মসূচির মাধ্যমে সেবা সপ্তাহ পালিত হবে। জাহিদ মালেক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুনর্গঠিত জাতীয় পুষ্টি পরিষদের প্রথম সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে প্রতিবছর ২৩ থেকে ২৯ এপ্রিলে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদযাপন করা হয়ে থাকে। এবছর জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহের সঙ্গে 'পুষ্টি সপ্তাহ' উদ্বোধনের নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।।