রমজান পরিবহনের বাসচাপায় কলেজছাত্র নিহত

image_titleরাজধানীর ডেমরা-রামপুরা সড়কে রমজান পরিবহনের একটি বাসের চাপায় গোলাম মোস্তফা কলেজের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনার জেরে জুমা নামাজের পর মোস্তফা মাঝি নামক এলাকায় ডেমরা-রামপুরা সড়ক অবরোধ করে ওই কলেজের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা।
শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
ডিএমপির ট্রাফিক পূর্ব বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. কামরুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, দুপুর ১২টা থেকে সাড়ে ১২টার সময়ে ডেমরা-রামপুরা সড়কের মোস্তফা মাঝির মোড় এলাকায় (স্টাফ কোয়ার্টার পার হয়ে) গোলাম মোস্তফা কলেজের এক শিক্ষার্থী বাইসাইকেল চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

এ সময় পেছন থেকে রমজান পরিবহনের একটি বাস ওই শিক্ষার্থীকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই ছেলেটি মারা যায়। তার মরদেহ বাসায় নেয়া হয়েছে। ওই এলাকাতেই ছেলেটির বাসা।

বাসচাপায় শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর সড়ক অবরোধ
তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার জেরে কলেজের শিক্ষার্থীরা ও স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ করে। পরে সেখানে পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত হন। ঘাতক বাস ও বাসের চালককে আটক করা হয়েছে। বাসচালককে ডেমরা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
ডিসি কামরুজ্জামান বলেন, কলেজশিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের অভিযোগ, ঘটনাস্থলে নেই জেব্রা ক্রসিং, স্পিড ব্রেকার কিংবা রোড ডিভাইডার। স্পিড ব্রেকার থাকলে দুর্ঘটনা ঘটতো না বলে দাবি তোলেন তারা। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে আজকের মধ্যে সব ব্যবস্থা করার কথা জানালে তারা সড়ক অবরোধ তুলে নেন। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক। প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে সড়ক ও জনপদ বিভাগের কর্মকর্তাদের ডেকে আজকের মধ্যেই স্পিড ব্রেকার স্থাপন ও ডিভাইডারের কাজ শুরু হয়েছে।
ডিএমপির ডেমরা জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার রবিউল ইসলাম বলেন, সড়কে ডিভাইডারের দাবিতে গোলাম মোস্তফা কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে। দাবি অনুযায়ী সড়কে রোড ডিভাইডারের ব্যবস্থা করা হবে আজকের মধ্যেই।
জেইউ/জেএইচ/এমএস