ইসরাইলে রকেট হামলা, বিকট শব্দে ঘুম ভাঙ্গল ইসরায়েলিদের

image_titleইসরাইলের তেলআবিব শহরের উত্তরাঞ্চলের একটি আবাসিক এলাকায় সোমবার রকেট হামলা চালানো হয়েছে। এতে একটি বাড়িতে আগুন ধরে যায় ও পাঁচ জন আহত হয়। পুলিশ ও চিকিৎসা কর্মীরা একথা জানান। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

এর আগে ইসরাইলি সেনাবাহিনী গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইলকে লক্ষ্য করে রকেট হামলার কথা জানিয়েছিল। বাড়িটি মিশমেরেত এলাকায় অবস্থিত।প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দে শ্যারনের বাসিন্দাদের ঘুম ভেঙেছে। পরে বিমান হামলার আগাম সতর্ক সংকেত জানাতে সাইরেন বাজানো হয়। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলছে, গাজা উপত্যকা থেকে ছোড়া একটি রকেট সনাক্ত করেছে তারা। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে।দেশটির পুলিশ বলছে, রকেট হামলায় একটি বাড়ি পুড়ে গেছে এবং ছয়জন আহত হয়েছেন।গাজা সীমান্তে ফিলিস্তিনিদের প্রতিবাদের বর্ষপূর্তি ঘিরে যখন ইসরায়েলের সঙ্গে উত্তেজনা তুঙ্গে ঠিক সেই সময় এই রকেট হামলার ঘটনা ঘটলো। ইসরায়েলে আগামী ৯ এপ্রিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে তেল আবিবের উত্তরাঞ্চলের কৃষি শহর মিশমেরেতে এই হামলা হলো।ইসরায়েলি অ্যাম্বুলেন্স সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ম্যাগেন ডেভিড অ্যাডম বলছে, ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের ছয়জন বাসিন্দাকে চিকিৎসা দিয়েছে তারা।আরো দেখুন : গাজায় ইসরাইলের বিমান হামলানয়া দিগন্ত অনলাইন; ১৫ মার্চ ২০১৯, ১১:৩৭ ইসরাইলি সামরিক বাহিনী শুক্রবার গাজায় হামাসের উপর বিমান হামলা চালিয়েছে। খবর এএফপি’র।গাজার নিরাপত্তা সূত্র এএফপি’কে জানায়, হামাসের সামরিক শাখা এবং তাদের মিত্র ইসলামিক যোদ্ধাদের বিভিন্ন অবস্থান লক্ষ্য করে প্রায় ৩০ বার বিমান হামলা চালানো হয়। এতে তাদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।সূত্র আরো জানায়, এসব হামলায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

ইসরাইলি প্রতিরক্ষা বাহিনী শুক্রবার সকালে টুইটারে এক বার্তায় জানায়, ‘গাজায় সন্ত্রাসীদের অবস্থান লক্ষ্য করে আমরা বিমান হামলা শুরু করেছি।’গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইল ও ফিলিস্তিনি ভূখন্ডের মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটছে। এতে তাদের মধ্যে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার হুমকি দেখা দিয়েছে। তেল আবিবে নির্বাচন আসন্ন হওয়ায় এসব ঘটনা ঘটছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে বৃহত্তর তেল আবিব জেলা লক্ষ্য করে গাজা থেকে দু’টি রকেট হামলা চালানোর কয়েক ঘণ্টা পর শুক্রবারের বিমান হামলা চালানো হয় বলে ইসরাইলি সামরিক বাহিনী জানায়।।