পনিরের নানা স্বাদ

image_title

বাজারে পাওয়া যায় নানা স্বাদের পনির। খাবারের অন্যান্য উপকরণের সঙ্গে সঠিক পনিরের ব্যবহারে তৈরি করা যায় মুখরোচক খাবার। সহজ কিন্তু মজাদার পনিরের পদ তৈরি করতে পারেন বাড়িতেই। রেসিপি দিয়েছেন সেলিনা আক্তার

চিজ চিংড়ি রোল

উপকরণ: চিংড়ি (খোসা ছাড়ানো, লেজ রেখে) ১৫টি, স্প্রিং রোল শিট ১৫টি, মোজারেলা চিজ ২৫০ গ্রামের ব্লক, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, আদা-রসুনগুঁড়া সামান্য, ফিশ সস ১ চা-চামচ, পার্সলেকুচি পরিমাণমতো, ডিম ১টি, লবণ খুব সামান্য, তেল ডিপ ফ্রাই করার জন্য।

প্রণালি: চিংড়ির সঙ্গে সব মসলা ও উপকরণ মিশিয়ে ১ ঘণ্টা মাখিয়ে রাখুন। মোজারেলা চিজের ব্লককে আঙুল আকারে কেটে নিতে হবে। ডিম আলাদা বাটিতে ফেটে রাখুন। এবার একটা করে স্প্রিং রোলের শিট বিছিয়ে এক কোনায় এক টুকরো চিজ ও একটি করে চিংড়ি রাখুন। চিংড়ি মাছের লেজটি বাইরের দিকে রেখে মুড়ে নিন। একইভাবে সব কটি বানিয়ে নিন। এবার কড়াইতে তেল দিয়ে সব কটি ডুবো তেলে ভেজে তুলে নিন। খেয়াল রাখবেন খুব কড়া ভাজা যেন না হয়। যেকোনো সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

তরমুজ পনির সালাদ
সালাদ ড্রেসিংয়ের উপকরণ: এক্সট্রা ভার্জিন জলপাই তেল ৩ টেবিল চামচ, লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, ভিনেগার ১ টেবিল চামচ, মধু ২ টেবিল চামচ, গোলমরিচ আধা চা-চামচ, পুদিনাকুচি ও লবণ স্বাদমতো।
প্রণালি: সব একসঙ্গে ভালো করে ফেটিয়ে নিয়ে ড্রেসিং তৈরি করে রাখুন।
সালাদের উপকরণ: তরমুজ চার কোনা করে কাটা ৪ কাপ, ফেটা চিজ ১ ব্লক, অ্যাভোকাডো ১টা (কিউব কাট), শসা চার কোনা করে কাটা (বিচি ফেলে দিতে হবে) আধা কাপ, আখরোট আধা কাপ, পুদিনাপাতা ১ কাপের তিন ভাগের এক ভাগ অংশ।
প্রণালি: সালাদের সব উপকরণ কেটে রাখুন এবং পরিবেশনের পাত্রে নিন। সালাদের ওপর আখরোট ও ফেটা চিজ হাত দিয়ে টুকরো করে সাজিয়ে দিন। এবার পরিবেশনের আগে ড্রেসিং সালাদের ওপর ছড়িয়ে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন।



মাখন–পনির মসলা

মসলার উপকরণ:
পেঁয়াজকুচি এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ অংশ, আদা বাটা আধা চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, ধনেগুঁড়া আধা চা-চামচ, কাশ্মীরি লাল মরিচ ২টি, কাঁচা মরিচ ২টি, আস্ত জিরা আধা চা-চামচ, টমেটোকুচি আধা কাপ, কাজু বাদাম ৫টি, পাপরিকা সিকি চা-চামচ, মাখন দেড় টেবিল চামচ, গরম মসলাগুঁড়া ১ চিমটি, লবণ ১ চিমটি।

প্রণালি: চুলায় প্যান দিয়ে মাখন দিন। মাখন গলে একটু গরম হলে আস্ত জিরার ফোড়ন দেবেন। এরপর পেঁয়াজকুচি দিয়ে একটু নরম হলে টমেটোকুচি ও একে একে সব মসলা দিয়ে কষিয়ে নেবেন। এক থেকে সোয়া কাপ পানি দেবেন। ৫-৭ মিনিট জ্বাল করে নেবেন মসলাটি। নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন। মসলাটা ব্লেন্ড করে নেবেন। ছেঁকে নিয়ে প্রস্তুত রাখুন।

পনিরের উপকরণ: পনির ৫০০ গ্রাম, মাখন ২ টেবিল চামচ, কাসৌরি মেথি ১ টেবিল চামচ, চিনি আধা চা-চামচ, ফ্রেশ ক্রিম ২ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি: পনিরকে চার কোনা (কিউব) আকারে কেটে নিতে হবে। কড়াইতে মাখন দিয়ে পনিরগুলোকে হালকা ভেজে নিন। এবার চুলায় আবার প্যান রেখে আগের তৈরি করা মসলা দিয়ে ঢেকে দেবেন অল্প আঁচে। মসলা ফুটে উঠলেই ভেজে রাখা পনির, ক্রিম, চিনি ও কাসৌরি মেথি দিয়ে ২ মিনিটের জন্য ঢেকে রাখুন। এরপর নামিয়ে পরিবেশন পাত্রে ১ চা-চামচ ফ্রেশ ক্রিম ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

আলু–পনির টিকিয়া
উপকরণ: সেদ্ধ গ্রেট করা আলু ১ কাপ, ঢাকাই পনির (গ্রেট করা) আধা কাপ, পেঁয়াজ পাউডার ১ চা-চামচ, আদা পাউডার আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ মিহিকুচি ১ চা-চামচ, ধনে পাতাকুচি ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, চাট মসলা পাউডার ১ চা-চামচ, ডিম ১টি, ব্রেড ক্রাম্ব এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ অংশ, তেল হালকা ভাজতে যতটুকু সময় লাগে।
প্রণালি: গ্রেট করা আলু ও পনিরের সঙ্গে সব মসলা দিয়ে হালকা হাতে ভালো করে মেখে নেবেন। একটি আলাদা বাটিতে ডিম ভালো করে ফেটে রাখবেন। টিকিয়ার আকারে বানিয়ে ডিমের গোলায় ডুবিয়ে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নিন। ১ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। প্যানে তেল ঢেলে গরম হলে টিকিয়াগুলো হালকা করে ভেজে নিতে হবে। সবুজ সস বা রাইতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

পনির টিকিয়া কাবাব
উপকরণ: পনির ৫০০ গ্রাম, ক্যাপসিকাম চার কোনা করে কাটা ৭-৮টি, বড় পেঁয়াজ চার কোনা করে কাটা পরিমাণমতো, রসুনবাটা ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ টেবিল চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, চাট মসলার গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, তন্দুরি মসলা ১ টেবিল চামচ, বেসন বা ময়দা ১ টেবিল চামচ, কাসৌরি মেথি ১ টেবিল চামচ, টক দই সিকি কাপ, ক্রিম ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচের কুচি ১ টেবিল চামচ, ধনে পাতাকুচি ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ৩ টেবিল চামচ, সরিষার তেল সিকি কাপ, লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালি: পনিরগুলো কিউব আকারে কেটে নিন। সব উপকরণ একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। পনিরের টুকরাগুলোও ক্যাপসিকাম ও কিউব কাট পেঁয়াজ দিয়ে মেখে রাখুন ১ ঘণ্টা। ক্যাপসিকাম, পনির, পেঁয়াজ কিউব আকারে শাশলিকের কাঠিতে সাজিয়ে গেঁথে নিন। চুলায় গ্রিল বা নরমাল প্যান দিন। প্যান গরম হলে কাঠিতে গেঁথে রাখা কাবাবগুলো প্যানে দিয়ে উল্টে–পাল্টে গ্রিল করতে থাকুন রং ধরা পর্যন্ত। নামিয়ে লেবুর রস ও চাট মসলা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।