রোনালদো নিষিদ্ধ হবেন না, প্রত্যাশা জুভেন্টাস কোচের

image_titleপ্রথম লেগে দুই গোলে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় লেগে উল্টো তিন গোলের ব্যবধানে জয়। আর দলের তিনটি গোলই দিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। উচ্ছ্বাসটা তাই স্বাভাবিকভাবেই বাঁধভাঙ্গা হবে। কিন্তু তাতে কিছুটা দৃষ্টিকটু আচরণও করে ফেলেন এ পর্তুগিজ তারকা।

প্রথম লেগে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ কোচ দিয়াগো সিমিওনির অনুকরণে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করেন তিনি। তাতেই ঝুলছে নিষেধাজ্ঞার শঙ্কা। তবে জুভেন্টাস কোচ মাসসিমিলিয়ানো আলেগ্রি অবশ্য প্রত্যাশা করছেন এমন কিছুই হবে না।
ইতালির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম গাজেত্তা দেল্লো স্পোর্ত জানিয়েছে রোনালদোর উদযাপন নিয়ে তদন্ত করবে উয়েফা কর্তৃপক্ষ। যদিও একই রকম উদযাপন করে ২০ হাজার পাউন্ড জরিমানা গুনেছিলেন অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ কোচ দিয়াগো সিমিওনি। তবে রোনালদোর প্রসঙ্গটা কিছুটা হলেও ভিন্ন। যদি অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের সমর্থক কিংবা কোচকে উদ্দেশ্য করে এমনটা করে থাকেন তাহলে নিষেধাজ্ঞায় পড়তে পারেন রোনালদো। আর প্রতিশোধমূলক আচরণ প্রমাণ হলে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জরিমানাও হতে পারে তার।
তবে এসব কিছুই ভাবছেন না আলেগ্রি। সেটা একটা অন্য সাধারণ উদযাপনই জানিয়ে বলেছেন, (নিষিদ্ধ) অবশ্যই হতে পারে না। আমার মনে হয় প্রত্যেকেই তার নিজস্ব ভঙ্গীতে উদযাপন করে। আমি এতে অবাক হওয়ার মতো কিছু দেখি না। এটা স্রেফ একটা উদযাপন। এতে নিষিদ্ধ হতে পারে না।
দলের বর্তমান অবস্থার কথা জানতে চাইলে বলেন, আমার দল মঙ্গলবার অবিশ্বাস্য কিছু করেছে। দলের অবস্থা খুবই ভালো আছে।

আর রোনালদোকে বিশ্রাম দিয়েছেন বলেও জানান তিনি। জেনোয়ার বিপক্ষে এদিন তাকে রাখা হয়নি স্কোয়াডে, আমি তাকে বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে এসেছি। তার এখন বিশ্রাম প্রয়োজন। সে অনেক ম্যাচ খেলেছে।
চলতি আসরে এর আগেও একবার নিষেধাজ্ঞায় পড়েছিলেন রোনালদো। আসরের অভিষেক দিনেই সরাসরি লাল কার্ড দেখেন রোনালদো। ভাগ্য সঙ্গে থাকায় নিষিদ্ধ হয়েছিলেন কেবল এক ম্যাচই। সরাসরি লাল কার্ড দেখলে শাস্তি সর্বোচ্চ তিন ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা। ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে আচমকা মেজাজ হারিয়ে খানিকটা জোরেই মুরিলো মাথায় হাত দিয়ে ধাক্কা দেন পর্তুগিজ তারকা। পরে রেফারি অফিসিয়ালের সঙ্গে কথা বলে লাল কার্ড দেখা পাঁচ বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ খেলোয়াড়কে।