এবার লন্ডনে মুসল্লির ওপর হাতুড়ি হামলা

image_titleনিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুমার নামাজের সময় মসজিদে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে পুরো বিশ্ব। অনেক দেশেই এ ব্যাপারে নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করেছে। কিন্তু এর মধ্যেই লন্ডনে মুসল্লিদের ওপর দুর্বৃত্তদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খবরটি গুরুত্বের সাথে প্রকাশিত হয়েছে।

প্রকাশিত ওই খবরে বলা হয়, পূর্ব লন্ডনের হোয়াইটচ্যাপেলে ক্যানন স্ট্রিট রোডে মসজিদের সামনেই শ্বেতাঙ্গ দুর্বৃত্তদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন এক মুসল্লি।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একটি নীল গাড়িতে চড়ে মসজিদের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তিনজন শ্বেতাঙ্গ দুর্বৃত্ত মুসল্লিদের লক্ষ্য করে ইসলামবিদ্বেষী বিভিন্ন কটূক্তি করতে থাকে। তারা জুমার নামাজ পড়তে যাওয়া লোকজনকে সন্ত্রাসী বলে গালাগালিও করে। এ সময় মুসল্লিরা ক্ষিপ্ত হয়ে গাড়িটিকে ধাওয়া দেয়। ওই মুহূর্তে দুই দুর্বৃত্ত গাড়ি থেকে বের হয়ে হাতুড়ি দিয়ে ২৭ বছর বয়সী এক মুসল্লির মাথায় আঘাত করে। এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে কিছুক্ষণ ধ্বস্তাধ্বস্তি হয়। এরপর পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, আনুমানিক ২০ বছর বয়সী দুই ব্যক্তি অস্ত্র হাতে একটি চলন্ত গাড়িতে হামলার চেষ্টা করছে। এক পর্যায়ে একজন গাড়ির বনেটে চেপে বসে।স্থানীয় পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে আমরা ১টা ১৮ মিনিটে এ এলাকায় উপস্থিত হই। আমরা জেনেছি তিন যুবক একটি নীল রঙের ফোর্ড ফিয়েস্তা গাড়িতে করে এসে এ হামলা চালায়। তাদের হাতে হাতুড়ি বা এ জাতীয় কোনো অস্ত্র ছিল। এখন তাদের সন্ধানে পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে।আরো পড়ুন : মসজিদে হামলা করা ব্যক্তির বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়েরএএফপি, ১৬ মার্চ ২০১৯, ১১:২৭নিউজিল্যান্ডের মসজিদে সিনেমা স্টাইলে হামলা চালিয়ে ৪৯ মুসল্লিকে হত্যাকরা কট্টর ডানপন্থী এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলায় শনিবার তাকে দেশটির একটি আদালতে হাজির করা হয়। খবর এএফপি’র।

খবরে বলা হয়, জন্মগতভাবে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ২৮ বছর বয়সী ব্রেন্টন ট্যারান্টকে হাতকড়া ও কারাগারের ঢিলেঢালা একটি সাদা পোশাক পরিহিত অবস্থায় কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এ সময় বিচারক তার বিরুদ্ধে দায়ের করা একক হত্যা মামলার অভিযোগ পড়ে শোনান। তার বিরুদ্ধে পরে আরো অনেক অভিযোগ দায়ের করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।আদালতে শুনানী চলাকালে সাবেক এ ফিটনেস ইনস্ট্রাক্টর ও আত্ম-স্বীকৃত ফ্যাসিস্টকে আনুষ্ঠানিকভাবে সংবাদমাধ্যমের সামনে হাজির করা হয়। তবে নিরাপত্তার কারণে সেখানে সাধারণ লোকজনের উপস্থিত থাকার কোন সুযোগ ছিল না।সশস্ত্র পুলিশের পাশে থাকা এ ব্যক্তি আকস্মিকভাবে মাথা নিচু করে ‘ঠিক আছে’ এমন ইঙ্গিত দেয়। তবে সে জামিনের আবেদন জানায়নি। পরবর্তী সময়ে আদালতে হাজির না করা পর্যন্ত তাকে নিরাপত্তা হেফাজতে রাখা হবে। আগামী ৫ এপ্রিল তাকে ফের আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।।