ক্রাইস্টচার্চে ২ মসজিদে হামলায় বহু হতাহত

image_titleপুলিশ কমিশনার মাইক বুশের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, হামলায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। আর কেউ এ হামলার সঙ্গে জড়িত কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আল নূর মসজিদে গুলি শুরু হলে তারা প্রাণ বাঁচাতে সেখানে থেকে দৌড়ে পালিয়ে যান। মসজিদের বাইরে রক্তাক্ত লোকজনকে পড়ে থাকতে দেখার কথাও জানান তারা।


আল নূর মসজিদ এলাকায় মহান ইব্রাহিম নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে বলেন, শুরুতে আমি ভেবেছিলাম বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে এমনটা হচ্ছে। পরে দেখি সবাই দৌড়াতে শুরু করেছে।
এখনো আমার বন্ধুরা মসজিদের ভেতরে আছে।
হামলার পর ক্রাইস্টচার্চ কর্তৃপক্ষ নগরীর সব মসজিদ পরবর্তী নোটিস না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। নগরীর সব স্কুলও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।