পাতে দেশি কই

image_title

এই সময়টায় দেশি কই মাছের আসল স্বাদ পাওয়া যায়। কই মাছ রান্না করা যায় নানা উপকরণে। এতে স্বাদেও আসে ভিন্নতা। রেসিপি দিয়েছেন শাহানা পারভীন

মটরশুটি-কই

উপকরণ

কই মাছ আধা কেজি, মটরশুটি আধা কাপ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা–চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, টমেটো ১টি, ধনেপাতা ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি, জিরাবাটা আধা চা–চামচ, লবণ স্বাদমতো ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি

মাছে হলুদ ও লবণ মেখে হালকা করে ভেজে রাখুন। এবার একটি ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজকুচি এবং সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে কষান। কষানো হলে মটরশুটি দিন। একটু নাড়াচাড়া করে ১ কাপ গরম পানি দিন। ফুটে উঠলে ভাজা মাছগুলো দিন। টমেটো, ধনেপাতা ও কাঁচা মরিচ দিন। ঝোল মাখামাখা হলে নামিয়ে নিন।

কই মাছে টেঙ্গা

উপকরণ

কই মাছ ৪টি, তেঁতুল (টেঙ্গা) ২ টুকরা, সরিষাবাটা ১ চা–চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা–চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, চিনি (ইচ্ছা) আধা চা–চামচ, ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা–চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি, লবণ স্বাদমতো ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি

লবণ ও লেবুর রস দিয়ে মাছ মেরিনেট করে রাখুন কিছুক্ষণ। এবার সামান্য হলুদ মেখে তেলে হালকা ভেজে তুলে রাখুন। এবার ফ্রাইপ্যানে বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে একটু কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হলে এক কাপ গরম পানি দিয়ে ভাজা মাছগুলো দিয়ে তেঁতুল, চিনি, কাঁচা মরিচ, ভাজা জিরার গুঁড়া, ধনেপাতাকুচি ছড়িয়ে একটু পর নামিয়ে নিন।

সবজি-কই

উপকরণ

কই মাছ আধা কেজি, ব্রোকলি ১ কাপ, আলু ১টি, টমেটো ১টি, গাজর আধা কাপ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ, হলুদগুঁড়া আধা চা–চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, গোলমরিচগুঁড়া সামান্য, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি, জিরাবাটা আধা চা–চামচ, গরমমসলার গুঁড়া আধা চা–চামচ, লবণ স্বাদমতো, নারকেলের দুধ ১ কাপ ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি

মাছে হলুদ ও লবণ মেখে ভেজে তুলুন। ব্রোকলি, আলু ও গাজর গোলমরিচ ও লবণ দিয়ে অল্প আঁচে ভেজে রাখুন (স্যতে করা)।

এবার ফ্রাইপ্যানে তেল ঢেলে তাতে বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে ভেজে নিন। নারকেলের দুধ দিয়ে সবজি ও ভাজা মাছ দিন, টমেটো দিন। সব শেষে গরমমসলার গুঁড়া ছড়িয়ে নামান।

কই পাতুরি

উপকরণ

দেশি কই মাছ ৪টি, সরিষাবাটা (১টি কাঁচা মরিচসহ) ১ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, পেঁয়াজ মিহি কুচি ১ কাপ, টমেটোকুচি ২ টেবিল চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ, হলুদগুঁড়া আধা চা–চামচ, লবণ স্বাদমতো, সরিষার তেল প্রয়োজনমতো, আস্ত কাঁচা মরিচ ৪টি, কলাপাতা ৪ টুকরা ও সুতা প্রয়োজনমতো।

প্রণালি

মাছ পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন, মাছে সামান্য হলুদ ও লবণ মেখে রাখুন। এবার একটি ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে টমেটোকুচি, পেঁয়াজকুচি, রসুনবাটা, সরিষাবাটা, মরিচগুঁড়া, হলুদগুঁড়া ও লবণ দিয়ে ভেজে মসলার পেস্ট তৈরি করে নিন। টুকরা করা কলাপাতায় তেল মেখে তাতে ২ টেবিল চামচ মসলার পেস্ট দিয়ে তার ওপর মাছ দিয়ে আবার ১ চা–চামচ মসলার পেস্টের সঙ্গে ১টি কাঁচা মরিচ দিয়ে কলাপাতা ভাঁজ করে সুতা দিয়ে বেঁধে নিন। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে এপিঠ-ওপিঠ করে ভাজতে হবে। কই পাতুরি গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।