সুস্বাস্থ্যের জন্য মসলা

image_titleসুস্বাস্থ্য অনেকটাই নির্ভর করে খাদ্যাভ্যাসের ওপর- এই নীতির ওপর নির্ভর করেই আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে বলা হয় প্রতিশেধকের চাইতে প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তোলাই সবচেয়ে ভালো। আর দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে চাই স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস।পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের ওপর প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানানো দেহ সুস্থ রাখতে পারে এরকম কিছু মসলার নাম।হলুদ: এতে আছে আয়ুর্বেদিক ঔষধি গুণ।

এটা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও প্রদাহরোধী উপাদান সমৃদ্ধ যা হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং পেটের সমস্যা দূর করে।কারি পাতা: ব্যাক্টেরিয়ারোধী উপাদান সমৃদ্ধ এই পাতা কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে, পেটের ব্যথা থেকে মুক্তি ও হজম সমস্যা দূর করে। এছাড়াও এটা সংক্রমণ কমিয়ে ক্ষতিকর জীবাণুর বিরুদ্ধে কাজ করে।     জিরা: পাকস্থলির সমস্যা থেকে মুক্তি দিয়ে পেট ফোলাভাব এবং প্রদাহ কমায়। এছাড়াও এটা রক্তের শর্করার মাত্রা কমায় এবং টাইপ-টু ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে কাজ করে। কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদরোগ প্রতিহত করতে সহায়তা করে। মেথি: সুগন্ধি মেথি ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, মাসিক চলাকালীন অস্বস্তি দূর করে, মুখের আলসার, পাকস্থলির সমস্যা, গলা ব্যথা দূর করে। এছাড়া স্তন্যদানকারী মায়ের জন্য বিশেষভাবে উপকারী। কালো গোল মরিচ: ভারতীয় রান্নায় গোল মরিচের ব্যবহার বেশ প্রচলিত। এটা হজমক্রিয়া উন্নত করে, মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখে এবং শ্বাসযন্ত্রের রোগ থেকে রক্ষা করে। কালো গোল মরিচ কানের ব্যথা দূর করে, দাঁতের ক্ষয় এবং অন্যান্য ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করে।আরও পড়ুনবিভিন্ন মসলার উপকারিতা  মাঝে মাঝে অভুক্ত থাকার উপকারিতা  প্রতিদিন রসুন খাওয়ার উপকারিতা  ।