উজ্জ্বলতা রক্ষায় উপায়

image_titleউজ্জ্বল ত্বক, চুল, নখ ইত্যাদি সবারই চাই কিন্তু শরীরের সব কিছুর উজ্জ্বলতা রক্ষা করতে অনেক বেশি যত্নের প্রয়োজন।রূপচর্চা-বিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ভারতের ভেষজ রূপবিশেষজ্ঞ শাহনাজ হুসাইনের দেওয়া কয়েকটি পন্থা সম্পর্কে জানানো হল যা শরীরের সার্বিক উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।   ফল: কলা, আপেল, পেঁপে, কমলা ইত্যাদি ফল একসঙ্গে মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করে ত্বকে লাগান। এটা সব ধরনের ত্বকের জন্য মানানসই।

পেঁপের এঞ্জাইম ত্বক পরিষ্কার করে। ত্বকের মৃত কোষ দূর করে এবং নতুন কোষ গঠনে সাহায্য করে।ত্বক টানটান রাখতে সাহায্য করে কলা। আপেল ও কমলা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ। এসব উপাদান একসঙ্গে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ত্বকে ৩০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন, উপকার পাওয়া যাবে।স্প্রে ব্যবহার করা: ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য ১০০ মি.লি. ডিস্টিল বা খনিজ পানি দিয়ে মুখের স্প্রে তৈরি করে ব্যবহার করুন। এতে ৩/৪ ফোঁটা টি ট্রি তেল মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি মুখে স্প্রে করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করে সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। স্প্রেটি রেফ্রিজারেইটরে সংরক্ষণ করতে পারেন।    টোনার: গ্রিন টি শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। আধ কাপ পানি একটি বাটিতে নিন। দুই টেবিল-চামচ চা-পাতা সিরামিকের বাটিতে নিয়ে তাতে গরম পানি ঢেলে দুই মিনিট অপেক্ষা করুন। তরল ঠাণ্ডা হয়ে আসলে তা তুলার বলের সাহায্যে ত্বকে টোনার হিসেবে ব্যবহার করুন।রোদে পোড়াভাব দূর করতে: তিলের বীজ, শুকনা পুদিনা পাতা, এক টেবিল-চামচ লেবুর রস ও মধু নিন। তিলের বীজ গুঁড়া করে তার সঙ্গে পুদিনার গুঁড়া মেশান। এরপর এতে লেবুর রস ও সামান্য মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখ ও বাহুতে লাগান।

তিলের বীজ রোদে পোড়াভাব দূর করার পাশাপাশি ত্বকের রংয়ের ভারসাম্য রক্ষা করে।পুদিনা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় এবং মধু ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রেখে ত্বক মসৃণ রাখে। এটা ত্বকে হাল্কাভাবে মালিশ করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।চুলের যত্ন: চুলের আর্দ্রতা রক্ষাকারী মাস্ক বানাতে দুই টেবিল-চামচ ভিনিগার, এক টেবিল-চামচ খাঁটি গ্লিসারিন এবং একটা ডিম ভেঙে মাস্ক তৈরি করুন। মাস্কটি হাল্কা মালিশ করে চুলে লাগান। প্লাস্টিকের গোসলের টুপি পরে আধ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। এরপর চুল ধুয়ে ফেলুন।     চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে মেহেদির প্যাক ব্যবহারে করুন। তৈলাক্ত, খুশকি প্রবণ চুলের জন্য চার টেবিল-চামচ লেবুর রস এবং কফি, দুটা কাঁচা ডিম এবং পর্যাপ্ত চায়ের পানি মেহেদির গুঁড়ার মধ্যে দিয়ে ঘন প্যাক বানিয়ে নিন। চায়ের পানি তৈরি করতে ব্যবহৃত চায়ের পাতা চার-পাঁচ কাপ পানি গরম করে তা ঠাণ্ডা করে নিতে হবে।মেহেদির প্যাক চুলে লাগিয়ে এক ঘণ্টা পর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কেউ যদি ডিম ব্যবহার করতে না চান তাহলে এখানে বেশি করে চায়ের পানি মেশাতে পারেন।নখের যত্ন: উজ্জ্বল নখ পেতে চাইলে কাঠবাদামের তেল গরম করে তাতে আঙ্গুল ও নখ ১০ মিনিট ডূবিয়ে রাখুন। নখ ও এর চারপাশের ত্বকে তেল মালিশ করে নিন। এরপর ভেজা তোয়ালে দিয়ে তা মুছে নিন। নখের চারপাশের বাড়তি চামড়া কেটে নিন। নখের আকার সুন্দর রাখতে ঠিক মতো কেটে রাখতে হবে। এটা নখের রংয়ের অসামঞ্জস্যতা দূর করে এবং নখ উজ্জল করে।প্রতীকী মডেল: সোনিয়া। ছবি: দিপ্ত।আরও পড়ুনসুন্দর ত্বক পাওয়ার পন্থা  যেসব খাবারে ফুটবে রূপ  এক সপ্তাহ মুখে পেঁপে ব্যবহারের ফলাফল।