শিশুদের বলে হেড নিষিদ্ধের ভাবনায় স্কটিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন

image_titleবিবিসি জানায়, ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগোর একদল বিশেষজ্ঞ সাবেক পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়দের জীবন নিয়ে গবেষণা করে অন্যদের তুলনায় মস্তিষ্কের নানা রোগে ভুগে তাদের মৃত্যুর ঝুঁকি সাড়ে তিন শতাংশ বেশি বলে জানিয়েছে।ওই গবেষণা প্রতিবেদন নিয়ে চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার পর স্কটল্যান্ডের ফুটবল কর্তৃপক্ষ এ নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়টি বিবেচনা করছে বলে জানায় বিবিসি।গত সপ্তাহে স্কটিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান চিকিৎসা উপদেষ্টা ডা. জন ম্যাকলিন বিবিসি কে বলেছিলেন, তিনি কম বয়সের খেলোয়াড়দের মাথা দিয়ে ফুটবলে আঘাত করা হ্রাসে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ দেখতে চান।ম্যাকলিন বলেন, স্কটিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন এবং উয়েফা একজোট হয়ে এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দিতে পারে।

খুব সামান্য কিছু পদক্ষেপ নিলেই হয়। যেমন: কম বয়সের খেলোয়াড়দের অনুশীলনের সময় হেড দেওয়া কমিয়ে আনা যায়। যেটা সপ্তাহে একদিন করা যেতে পারে। তাহলে ওই সময়ে মস্তিষ্ক তার ক্ষতি সারিয়ে তুলতে পারবে। ডা. ম্যাকলিন উয়েফার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক কমিটিরও সদস্য।যুক্তরাষ্ট্রে ২০১৪ সাল থেকে শিশু ফুটবলারদের হেড করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।।