ভালো ঘুমের খাদ্যাভ্যাস

image_titleপুষ্টি-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে ভালো ঘুম সহায়ক খাবার সম্পর্কে জানানো হল।ঘুমানোর দুই ঘণ্টা আগে খাবার খাওয়া: ঘুমের কমপক্ষে দুই ঘণ্টা আগে খাবার খাওয়া আদর্শ। এতে খাবার ঠিক মতো হজম হয়। ঘুমানোর কাছাকাছি সময় খাবার খাওয়া হলে তা গ্যাসের সৃষ্টি করে।

ফলে ঘুমে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়।শরীরের তাপমাত্রা কমানো: যেসকল খাবার শরীরে তাপ সৃষ্টি না করে বরং শরীর ঠাণ্ডা করে সে সকল খাবার – তাজা সবজি, ফল, দুধ গ্রহণ করা ভালো। এসব খাবার খাওয়া হলে শরীরে বেশি মেলাটোনিন নিঃসরণ হয়। এই হরমোন অনিদ্রা দূর করে। ক্যাফেইন এড়িয়ে চলা: দিনের শেষ চা বা কফি বেলা চারটার মধ্যে পান করার চেষ্টা করতে হবে। ধারণা করা হয়, রাতে ঘুম কম হওয়ার পেছনে ক্যাফেইনের ভূমিকা অনেক।এছাড়াও কোলা, শক্তি বর্ধক পানীয় এবং অন্যান্য ওষুধের কারণে অনিদ্রার সমস্যা দেখা দেয়।যদি কোনো ধরনের পানীয় খাওয়ার ইচ্ছা হয় তাহলে ক্যামোমাইল বা ল্যাভেন্ডার চা পান করা যেতে পারে।সঠিক নাস্তা: রাতে ঘুমাতে যাওয়ার কোনো কিছু খেতে ইচ্ছে হলে এমন নাস্তা নির্বাচন করুন যা ঘুম সহায়ক।স্বাস্থ্যকর ও ঘুমে সহায়তা করে এমন খাবার – চেরি, কাঠবাদাম, আখরোট, কিউই, হলুধ মেশানো এক গ্লাস দুধ, কলা, ও ওটমিল এক্ষেত্রে কার্যকর।আরও পড়ুনযে কারণে সকালে ঘুম থেকে ওঠা কঠিন  ঘুমের অভ্যাস ঠিক করতে  গভীর রাতে ঘুম ভেঙে যাওয়ার কারণ  ঘুম কম তো মিষ্টি বেশি  ।