নব্য মায়ের নিজের যত্ন

image_titleমাতৃত্ব মানেই নতুন দায়িত্ব, সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখা। আর সেটা করতে গিয়ে মা হিসেবে নিজের ঘুম, খাওয়া, শরীরের যত্ন কোথায় যেন হারিয়ে যায়।এই ব্যস্ত সময়ের মধ্যেও নিজের যত্ন নেওয়ার সময় বের করে নিতে হবে।স্বাস্থ্য-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে পাওয়া তথ্যের আলোকে জানানো নব্য মায়েদের নিজেই নিজের যত্ন নেওয়ার সহজ কয়েকটি উপায়।

সাহায্য চাইতে হবে: সন্তানের যত্ন নিতে গিয়ে মাঝেমধ্যে হিমশিম খেয়ে যেতে পারেন। মনে রাখতে হবে, সবকিছু্ আপনাকেই করতে হবে এমন নয়। পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কাছেও সাহায্য চাইতে হবে। শুধু পরিবার নয়, কাছের বন্ধুরাও কাজে আসতে পারেন। আর সবাই আপনাকে ব্যক্তিগত ওই সময়টুকু দিতে পেরে খুশিই হবে। সন্তানের দেখাশোনা থেকে বাজার করা পর্যন্ত যে কোনো কাজেই তাদের সাহায্য চাওয়া শিখতে হবে।ঘুমের পেছনে সময় দিন: সন্তান ঘুমিয়ে পড়লে হয়ত বিনোদনের দিকে মনযোগ দেওয়ার তাড়না অনুভব করবেন, আর তা অস্বাভাবিক নয়। তবে বিনোদনের চাইতে স্বাস্থ্যকর কাজ হবে ঘুমানো। তাই সবকিছু সরিয়ে সন্তানের ঘুমের সঙ্গে নিজেও ঘুম দিন। ঘুম না আসলে গান শুনতে পারেন, বই পড়তে পারেন কিংবা যে কাজই স্বস্তি ও আরাম দেবে সেই কাজে মনযোগ দিতে পারেন।শরীরচর্চা ছাড়া যাবে না: প্রতিটি নব্য মায়ের উচিত প্রতিদিন কমপক্ষে আধা ঘণ্টা শরীরচর্চা করা। তা হতে পারে হাঁটাহাঁটি, প্রিয় কোনো গানের সঙ্গে নাচ এমনকি কেনাকাটাও।আরও পড়ুনমা হওয়ার পরে  মা হওয়ার উপযুক্ত সময়  সন্তান পালনে বাবা-মায়ের শৈশবের প্রভাব  প্রথমবার মা-বাবা হওয়ার প্রস্তুতি  ।