ফের সানডের ভিসা নিয়ে জটিলতা

image_titleনইজেরিয়া বলে কথা। এই দেশের ফুটবলারদের ভিসা দেয়া নিয়ে সমস্যা করে নানান দেশ। এবারের এএফসি কাপের বাছাই পর্বে ঢাকা আবাহনীর নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার সানডেকে চিজোবাকে ভিসা দেয়নি ভারত। চেন্নাইয়ান এফসির বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচের সময় তার ভিসা হয়েছিল একেবারে শেষ মুহুর্তে।

কিন্তু মিনার্ভা পাঞ্জাবের বিপক্ষে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন ম্যাচে তাকে ভারত যাওয়ার ভিসা দেয়নি ঢাকাস্থ ভারতীয় দূতাবাস। ফলে ওই ম্যাচে তাকে ছাড়াই খেলতে হয় আবাহনীকে। অবশ্য সানডেসহ দুই বিদেশীকে ছাড়াই আবাহনী শেষ ম্যাচে জিতে প্রথম বারের মতো কোয়ালিফাই করে এএফসি কাপের নক আউট পর্বে। এখন এই গুরুত্বপূর্ন ফুটবলারটিকে উত্তর কোরিয়া নিয়ে যাওয়া নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে সংশয়। তার উত্তর কোরিয়ান ভিসা হয়ে গেছে। কিন্তু এই দেশটিতে যাওয়ার সময় চীনে ট্রানজিট আবাহনীর। উত্তর কোরিয়া যাওয়ার আগে চীন থেকে বিমানে উঠতে চীনের ভিসা লাগবে। অথচ চীন সরকার ভিসা দিচ্ছে না সানডেকে। ক্ষোভের সাথে এই তথ্য দেন আবাহনীর ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপু। রুপু জানান, ‘সানডে স্রেফ নাইজেরিয়ান। এজন্য চীন তার ভিসা দিতে চাচ্ছে না। যদিও আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। হাতে এখনও সময় আছে।’হাতে সময় ছিল মিনার্ভা পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচের আগেও। তখনও আবাহনী কর্র্তৃপক্ষ আশা করেছিল হয়তো শেষ সময়ে ভিসা দেবে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন। কিন্তু হতাশই হতে হয় সানডে এবং বাংলাদেশী ক্লাবকে।

এবারও কি তাই হবে। রুপুর জবাব, তাহলে সেটা হবে খুবই দুঃখজনক। একটি দল পূর্ন শক্তি নিয়ে খেলবে আর আমরা ভিসা সমস্যায় সবাইকে নিয়ে পারবো না এটা মেনে নেয়া কষ্ট কর। এএফসির আসরে তা কিভাবে গ্রহনযোগ্য হয়। এমন দেশে গিয়ে কেন এএফসির টূর্নামেন্টে খেলতে হবে যেখানে খেলতে গেলে ভিসা নিয়ে জটিলতার জন্ম দেবে।এদিকে কাফ মাসলের ইনজুরির জন্য বুধবার উত্তর কোরিয়ান ক্লাব এপ্রিল-২৫ এর বিপক্ষে খেলা হচ্ছে না মামুনুল ইসলাম মামুনের। নতুন আসা মিশরীয় ডিফেন্ডার ঈসারও বুধবার খেলা হচ্ছে না মালদ্বীপের ক্লাবের হয়ে এ আসরে তার খেলা সর্বশেষ ম্যাচে লাল কার্ড পাওয়ায়। ।