২২ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে লঞ্চ-ফেরি চলাচল শুরু

বৈরী আবহাওয়ার কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি, লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল প্রায় ২২ ঘণ্টা। আবহাওয়া অনুকূলে আসলে বুধবার (১৪ আগস্ট) সকাল পৌনে ৭টা দিকে পুনরায় শিমুলিয়া থেকে কাঁঠালবাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রীবাহী লঞ্চগুলো ছেড়ে যায়। এর আগে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টা থেকে এই রুটে নৌযান চলাচল এক প্রকার বন্ধ ছিল। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বড় সাইজের ড্রাম ফেরি সিমিত আকারে চললেও তা কয়েক দফায় বন্ধ রাখা।

তবে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল একেবারেই বন্ধ হয়েছে ছিল। বুধবার (১৪ আগস্ট) সকাল পৌনে ৭টা দিকে আবহাওয়া অনুকূলে আসলে পুনরায় শিমুলিয়া থেকে...বৈরী আবহাওয়ার কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি, লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল প্রায় ২২ ঘণ্টা। আবহাওয়া অনুকূলে আসলে বুধবার (১৪ আগস্ট) সকাল পৌনে ৭টা দিকে পুনরায় শিমুলিয়া থেকে কাঁঠালবাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রীবাহী লঞ্চগুলো ছেড়ে যায়।এর আগে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টা থেকে এই রুটে নৌযান চলাচল এক প্রকার বন্ধ ছিল। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বড় সাইজের ড্রাম ফেরি সিমিত আকারে চললেও তা কয়েক দফায় বন্ধ রাখা। তবে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল একেবারেই বন্ধ হয়েছে ছিল।বুধবার (১৪ আগস্ট) সকাল পৌনে ৭টা দিকে আবহাওয়া অনুকূলে আসলে পুনরায় শিমুলিয়া থেকে কাঁঠালবাড়ির উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় যাত্রীবাহী লঞ্চগুলো। বর্তমানে ফেরি ও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।বিআইডব্লিউটি এর শিমুলিয়া ঘাট ইনচার্জ সোলাইমান জানান, উত্তাল পদ্মায় দুর্ঘটনা এড়াতে গতকাল সকাল সাড়ে ৮ থেকে সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল। আজ সকালে আবহাওয়া অনুকূলে আসলে প্রায় ২২ ঘণ্টা পর পুনরায় নৌযান চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে স্পিডবোট এখনো বন্ধ রয়েছে।।