তালেবান হুমকিতে আফগান রেডিও স্টেশন বন্ধ

image_titleসোমবার একথা জানিয়েছেন রেডিওটির কর্মকর্তারা। রেডিওতে উপস্থাপনায় নারীদের রাখার কারণেই এ হুমকি বলে জানান তারা।তালেবান জঙ্গিরা আফগানিস্তানের সামা রেডিও স্টেশন কর্তৃপক্ষকে নারী কর্মী না রাখার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু তারা ওই নির্দেশ উপেক্ষা করে তিনজন নারীকে উপস্থাপিকা হিসাবে নিয়োগ করে।

২০১৩ সাল গজনি প্রদেশ থেকে সম্প্রচার শুরু করা সামা রেডিওতে আফগানিস্তানের প্রধান দুই ভাষা দারি ও পশতুতে রাজনৈতিক, ধর্মীয়, সামাজিক ও বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান প্রচার করা হত। রেডিওতে মোট ১৩ জন কর্মীর মধ্যে তিন উপস্থাপিকা ছিলেন।রেডিও স্টেশনটির পরিচালক রামেজ আজিমি বলেন, স্থানীয় তালেবান কমান্ডার তাকে  চিঠি পাঠিয়ে এবং টেলিফোনে নারী কর্মী না রাখার বিষয়ে সতর্ক করেছিল। তালেবান আমার বাড়িতে এসেও হুমকি দিয়ে গেছে। হুমকির কারণে বাধ্য হয়েই তিনি রেডিও স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছেন বলে জানান।তবে তালেবান মুখপাত্র জাবিহউল্লাহ মুজাহিদ হুমকি দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার বলে বলেছেন, আমরা এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি। অনেকে ব্যক্তিগত বিরোধের সময়ও নিজেদের  তালেবান বলে মিথ্যা পরিচয় দেয়। গজনি প্রদেশের অনেক এলাকায় তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানে তালেবান শাসন চলেছে। ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্র অভিযানের মাধ্যমে তালেবান সরকারকে উৎখাত করে। তারপর থেকে দেশটিতে যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে।মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র -তালেবান আলোচনা চলছে গত কয়েক বছর ধরে। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে গত সপ্তাহে কাতারের দোহা সম্মেলনে আফগানিস্তানে রক্তক্ষয়ের অবসান ঘটানোসহ নারীদের সুরক্ষায়ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে আফগান-তালেবান।যদিও কার্যত তালেবান ওই প্রতিশ্রুতি পূরণ করবে কিনা তা নিয়ে সন্দিহান দেশটির নারীরা।।