দেশের স্বার্থে এক হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ও বিরোধী নেতা

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো এবং বিরোধী নেতা প্রাবোও সুবিয়ান্তো এপ্রিলের নির্বাচনের পর এই প্রথমবার একে অপরের সাথে দেখা করলেন ট্রেনযাত্রার সময়।এপ্রিলের নির্বাচনে উইদোদো প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হলেও তার প্রতিপক্ষ নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ আনে এবং বিরোধী সমর্থকরা বিক্ষোভ করে।বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের সময় নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে অন্তত নয়জন বিক্ষোভকারী মারা যায়।তবে গতমাসে ইন্দেনেশিয়ার সাংবিধানিক আদালত নির্বাচনের ফল বহাল রাখে।

শনিবার জাকার্তার নতুন পরিবহণ ব্যবস্থা পরীক্ষা করার সময় পারস্পরিক দ্বন্দ্ব ভুলে একত্রিত হন উইদোদো ও সুবিয়ান্তো।প্রেসিডেন্টের পাশে দাড়িয়ে সুবিয়ান্তো বলেন, ‘কেউ কেউ জিজ্ঞাসা করেছে যে নির্বাচনে জেতায় কেন আমি প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানাইনি? কারণ আমি তাকে সামনা-সামনি অভিনন্দন জানাতে চেয়েছিলাম।’প্রেসিডেন্টকে তার কাজে সহায়তার আশ্বাস দিয়ে সুবিয়ান্তো বলেন, ‘প্রেসিডেন্টের কাজ মানুষের সেবা করা এবং এই কাজে অনেক সমস্যার মধ্যে পড়বেন তিনি। তাকে সহায়তা করার জন্য প্রস্তুত রয়েছি আমি।’প্রেসিডেন্ট উইদোদো বলেন, জাকার্তার নতুন গণপরিবহণ ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করার জন্য তার প্রতিপক্ষকে আমন্ত্রণ জানান তিনি।২০১৪ সালের নির্বাচনে প্রথমবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন উইদোদো।উইদোদো বলেন, ‘এভাবে বিরোধী নেতা প্রাবোও সুবিয়ান্তোর সাথে দেখা করতে পারায় আমি খুবই আনন্দিত।’‘আমি আশা করবো আমাদের সমর্থকারও একত্রিত হয়ে কাজ করার বিষয়টি মাথায় রাখবেন, কারণ আমরা সবাই একই দেশের নাগরিক। বিশ্বে প্রতিযোগিতা বাড়ছে এবং আমাদের দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে আমাদের একতাবদ্ধ থাকতে হবে।’সূত্র : বিবিসি।