৩০ হাজার শিশুকে যুদ্ধে নামিয়েছে হাউছিরা ইয়েমেন

image_titleইয়েমেনে যুদ্ধ শুরুর পর সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী হাউছিরা এখন পর্যন্ত ৩০ হাজারেরও বেশি শিশুকে যুদ্ধে নিয়োগ দিয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির মানবাধিকার মন্ত্রী মোহাম্মদ আসকর। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, কোনো রকম প্রশিক্ষণ ছাড়াই শিশুদেরকে সহিংস এলাকায় পাঠায় ইরানপন্থী হাউছিরা।২০১৪ সালে রাজধানী সানা দখলের পর সৌদি সমর্থিত ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আবদু রাব্বিহ মনসুর আল হাদিকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করে হাউছি বিদ্রোহীরা। দেশের বাইরে থাকা হাদিকে দেশে ফেরাতে ২০১৫ সালের জুনে ইয়েমেনে সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট।

হাউছিদের বিরুদ্ধে হাদি সরকারের মন্ত্রীর অভিযোগ, শিশুদের স্কুলে না পাঠিয়ে যুদ্ধক্ষেত্রে পাঠানো হচ্ছে। তাদের টাইমবোমার মতো করে ব্যবহার করা হচ্ছে। এ দিকে সরকারের সমর্থনে সৌদি জোটের ‘অপারেশন ডিসাইসিভ স্টর্ম’ অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত নারী-শিশুসহ ১০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।মন্ত্রী দাবি করেন, হাউছিদের লুটের কারণে ২১ জুন থেকে বিশ্বখাদ্য কর্মসূচির মানবিক সহায়তা সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। হাউছিরা এই সহায়তা সামরিক উদ্দেশ্যে ব্যয় করে বলে অভিযোগ করেন তিনি। আসকর জানান, এই সহায়তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আট লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।।