সুযোগ কাজে লাগাবে রুবেল ওয়ালশ

প্রথম তিন ম্যাচে রুবেল হোসেন কেন একাদশে নেই, এই নিয়ে বহু প্রশ্নের জবাব দিতে হয়েছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্টকে। চতুর্থ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একাদশের ভাবনায় ছিলেন রুবেল। কিন্তু বৃষ্টিতে সেই ম্যাচ ভেসে যাওয়ায় অপেক্ষা বাড়ে এই ডানহাতি পেসারের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টন্টনে তাই তার খেলার সম্ভাবনা খুব জোরালো।

পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ মনে করেন, এবার মাঠে নামলে কিছু একটা ছাপ রাখার মতই খেলবেন রুবেল।
টন্টনে আসার পর প্রথম দুদিন শুয়ে বসে দিন পার করেন ক্রিকেটাররা। কয়েকজন তো টন্টন এসেছেনই পরে। শুক্রবার টন্টন প্রথম অনুশীলন করতে নামেন মাশরাফি মর্তুজারা। তবে এই ভেন্যুর প্রথম দিনের অনুশীলনে ছিলেন না সাকিব আল হাসান, মোসাদ্দেক হোসেন ও রুবেল হোসেন।
রুবেল বিশ্রামে থাকলেও তার কোন চোট সমস্যা নেই। নেট বোলিংয়ে আছেন ছন্দে। ম্যাচেও তার ছাপ রাখতে আছেন তৈরিও। আগের ম্যাচগুলোতে কম্বিনেশনের কারণেই তাকে রাখা যায়নি। এবার মাঠে নামার সম্ভাবনা তৈরি হওয়ায় শিষ্য পুরোটাই কাজে লাগাবেন বলে বিশ্বাস ওয়ালশের, এটা নির্বাচকদের ব্যাপার। গত মৌসুমে সে দারুণ ছিল। এই বছরও ভাল বল করেছে। কিন্তু দলের কম্বিনেশনের কারণে তাকে খেলানো যায়নি। আমি আশা করছি সে সুযোগ কাজে লাগাবে। এখনো টুর্নামেন্টের অনেক খেলা বাকি। ও খেলার জন্য মুখিয়ে আছে।


সে নেটে ভালো বল করেছে। যখনই সুযোগ পাবে আমি আশা করি সে ওটা কাজে লাগাবে।
পরের ম্যাচের বাংলাদেশের প্রতিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সাউথাম্পটনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলিয়েছে চার পেসার। টন্টনে এর আগের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তানও খেলিয়েছে চার পেসার। সাফল্যও পেয়েছেন তারা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশেও চার পেসার দেখার ইঙ্গিত দিলেন ওয়ালশ, তারা চার পেসার নিয়ে সাউথাম্পটনে খেলছে, ভালোই। টন্টনে কি হবে কে জানে। সাউথাম্পটনে বল ক্যারি করে, গতিও হয়। একজন ফাস্ট বোলার হিসেবে ভালোই লাগে আমার। আমাদেরকে এই ক্ষেত্রে ভাবনে হবে আমাদের এখানে কি রসদ আছে। চার পেসার নিয়ে খেলার আলোচনা হচ্ছে। রুবেলকে বল করতে দেখলে অবাক হবো না।