নিউজিল্যান্ডের কাছে হারলেও বাংলাদেশকে নিয়ে গর্বিত রাজ্জাক

মাত্র ২৪৪ রান করেও যে হার না মানা মানসিকতা দেখিয়েছে বাংলাদেশ তাতে গর্বিত স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের কাছে দ্বিতীয় ম্যাচে ২ উইকেটে হারের পরও মাশরাফিদের পারফরম্যান্স নিয়ে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন তিনি।
আইসিসির কলামে রাজ্জাক লিখেছেন, ‘খেলায় যেভাবে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়ালো, তাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের পারফরম্যান্স নিয়ে গর্ব করা উচিত। ম্যাচটি জিততে না পারা লজ্জার, কিন্তু এত কাছে যাওয়াটা ছিল অসাধারণ।


বাংলাদেশের হার না মানা মানসিকতার প্রশংসা করলেন এই স্পিনার, ‘রস টেলর ও কেন উইলিয়ামসন ক্রিজে থাকা অবস্থায় মনে হচ্ছিল ম্যাচ শেষ। কিন্তু এই বাংলাদেশ কখনও হাল ছাড়ে না। সব ভক্তদের তারা গর্বিত করেছে। এই ম্যাচ থেকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার আত্মবিশ্বাস পেয়েছে তারা।’
উইলিয়ামসনের রান আউট করতে না পারায় মুশফিকুর রহিমের সমালোচনার বিরুদ্ধে রাজ্জাক। এমনটা হওয়া স্বাভাবিক লিখেছেন তিনি, ‘উইলিয়ামসনকে রান আউট করতে না পারায় মুশফিকুর রহিমের চেয়ে আর কেউই বেশি হতাশ নয়। ভুল হয়ে থাকে, এটা বাজে ছিল। যদি উইলিয়ামসনকে ফেরানো যেত তাহলে ভিন্ন কিছু হতো। আমি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে পারি না। সে আমাদের সেরা ব্যাটসম্যান, ভালো করছে সে। আর কিপিং করা সত্যিই কঠিন।’
বাংলাদেশের মিডল অর্ডারের দায়িত্বহীনতা ছিল চোখে পড়ার মতো। বড় জুটির অভাবে মাত্র ২৪৪ রানে গুটিয়ে যেতে হয়েছে মনে করেন রাজ্জাক। পরের ম্যাচ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে, যাদের বিপক্ষে বিশ্বকাপে আগের দুটি ম্যাচই জিতেছিল বাংলাদেশ। এই কন্ডিশনে স্বাগতিকদের হারানো কঠিন মনে করলেও অসম্ভব নয় বিশ্বাস রাজ্জাকের, ‘পরের ম্যাচে বাংলাদেশ ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে এবং এই কন্ডিশনে এটা কঠিন ম্যাচ। এই চ্যালেঞ্জের জন্য মুখিয়ে আছে বাংলাদেশ।


তিনি আরও লিখেছেন, ‘দুই দলের সমস্যা আছে এবং ইংল্যান্ডের ওপর চাপ বেশি, কারণ তাদের কন্ডিশন এবং ২০১১ ও ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে আমরা তাদের হারিয়েছি। এটা আমাদের জন্য খুব ভালো ব্যাপার। তবে এই দল ভিন্ন এবং আবহও অন্যরকম, কিন্তু ওই জয়গুলো অনেক আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।’
বাংলাদেশের ব্যাটে-বলে উন্নতির প্রশংসা করলেন রাজ্জাক। আর প্রবাসীদের সমর্থনে মুগ্ধ তিনি, ‘বাংলাদেশের উন্নতি অনেক, ম্যাচ যদি নাও জিতি ইংলিশদের বিপক্ষে ভালো একটা লড়াই হবে। ভক্তদের সমর্থন আমরা দেখতে পাচ্ছি, ইংল্যান্ডে বাংলাদেশের কমিউনিটি অনেক বড়। এই ম্যাচগুলো খেলা ও জিততে পারা তাদের কাছে অনেক কিছু। আবারও সেটা করতে পারার সত্যিই ভালো সুযোগ আছে।’