রাহুলকে বিদায় করলেন সাব্বির

image_titleভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপের শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে বোলিংয়ে দারুণ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। ১০২ রানে তাদের ৪ উইকেট তুলে নেয় তারা। কিন্তু লোকেশ রাহুলের সঙ্গে মহেন্দ্র সিং ধোনির শক্ত প্রতিরোধের মুখে পড়ে বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত রাহুলকে বোল্ড করে ১৬৪ রানের জুটি ভাঙলেন সাব্বির রহমান।

৪৪ ওভারে ৫ উইকেটে ২৬৮ রান ভারতের।
টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের কারণে ভারত বিপদে পড়েছিল। তবে ধোনির সঙ্গে রাহুলের দেড়শ ছাড়ানো জুটিতে পথে ফেরে তারা। এই জুটি ভাঙেন সাব্বির তার চতুর্থ ওভারে। তার স্পিনে রাহুলের অফস্টাম্প ভাঙে। ৯৯ বলে ১২ চার ও ৪ ছয়ে ১০৮ রান করেন তিনি। ধোনির সঙ্গে ক্রিজে আছেন হার্দিক পান্ডিয়া।
কার্ডিফে বাংলাদেশকে শুরুতে সাফল্য এনে দেন মোস্তাফিজুর রহমান। আরেক ওপেন রোহিত শর্মাকে ফেরান রুবেল হোসেন। এরপর বিরাট কোহলিকে আক্ষেপে পোড়ান মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।
মাত্র ৫ রানে ভারত শিখর ধাওয়ানকে হারায়। তৃতীয় ওভারে মোস্তাফিজের ফুল লেন্থের বল কোনাকুনি ভেতরে ঢুকে এলবিডাব্লিউ হন এই ওপেনার। এরপর কোহলির সঙ্গে রোহিতের ৪৫ রানের জুটি ভাঙেন সাইফউদ্দিন। তার শর্ট বল রোহিতের ব্যাটে লেগে নিচু হয়ে স্টাম্পে আঘাত করে। ভারতীয় ওপেনার ৪২ বল খেলে ১৯ রানে বিদায় নেন।
কোহলি ক্রিজ আগলে রেখেছিলেন।

হাফসেঞ্চুরিতে প্রস্তুতি সারার অপেক্ষায় ছিলেন অধিনায়ক। কিন্তু সাইফউদ্দিনের দুর্দান্ত এক বল দিক পাল্টে তার স্টাম্পে আঘাত করে। ৪৬ বলে ৫ চারে ৪৭ রান করেন কোহলি। মাত্র ৭ বল খেলে বিজয় আউট হলেন।
ম্যাচ শুরুর দুই বল হতেই হানা দেয় বৃষ্টি। খেলা বন্ধ থাকে প্রায় আধা ঘন্টার মতো। তার আগে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি মুর্তজা।
কার্ডিফে শুরুতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পেছনে যুক্তি দেখিয়েছেন মাশরাফি। উইকেট বেশ কিছুদিন কাভারে ঢেকে থাকায় কিছু বাড়তি সুবিধা পাওয়া যাবে বলে ধারণা বাংলাদেশ অধিনায়কের।
ভারতীয় অধিনায়ক কোহলিও টস জিতলে বোলিং নিতেন বলে জানিয়েছেন। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে বাজেভাবে হেরেছে ভারত। প্রথম ম্যাচে ভারত ৩৯.২ ওভারে গুটিয়ে যায় ১৭৯ রানে। জবাবে নিউজিল্যান্ড ৪ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয়।