রোহিঙ্গা দমননীতির বিরুদ্ধে মুখ খুলল সৌদি আরব

রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সরকারের দমননীতির নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব।শনিবার জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের তার দেয়া ভাষণে দমননীতির কঠোর সমালোচনা করেন। খবর রয়টার্সের। সাধারণ অধিবেশনে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, আমার দেশ মুসলিম রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সরকারের নিপীড়ন ও জোরপূর্বক অবরুদ্ধকরণের নীতির প্রতি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এবং এর নিন্দা জানাচ্ছে।রোহিঙ্গা নিপীড়নের বিরুদ্ধে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সরব হলেও এতদিন মুখ বন্ধ করে ছিল ইসলামের জন্মভূমি বলে পরিচিত সৌদি আরব।গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনীর তথাকথিত ক্লিয়ারেন্স অপারেশন শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত ৪ লাখ ৩০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। নিহত হয়েছে কয়েক হাজার রোহিঙ্গা। জাতিসংঘ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর এ অভিযানকে জাতিগত নিধন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এ সংকট নিরসনে জাতিসংঘ ও ক্ষমতাধর দেশগুলোর ওপরও চাপ বাড়ছে।