পৌরসভার উন্নয়নে এডিবির আরো ২০ কোটি ডলার

‘আরবান গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইম্প্রুভমেন্ট (তৃতীয় পর্যায়)’ প্রকল্পে এ অর্থায়ন করছে সংস্থাটি।মঙ্গলবার এ বিষয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) ও এডিবির মধ্যে শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একটি চুক্তি হয়েছে।চুক্তিতে ইআরডি সচিব কাজী শফিকুল আযম এবং এডিবির আবাসিক প্রতিনিধি কাজুহিকো হিগুছি স্বাক্ষর করেন।বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় এক হাজার ৬০০ কোটি টাকার এই ঋণ পাঁচ বছরের রেয়াতকালসহ ২৫ বছরে পরিশোধ করতে হবে।এরমধ্যে ১০ কোটি ডলার ২ শতাংশ সুদে আর বাকী ১০ কোটি ডলার লন্ডন আন্তঃব্যাংক সুদ হারের (লাইবর) সঙ্গে শুন্য দশমিক ৫০ শতাংশ সুদসহ পরিশোধ করতে হবে।অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এই প্রকল্পে মোট ব্যয় হচ্ছে ৫১ কোটি ৬০ লাখ ডলার। এর আগে ২০১৪ সালের অগাস্টে এডিবি এ প্রকল্পটির জন্য ১২ কোটি ৫০ লাখ টাকার ঋণ চুক্তি করেছিল।বাকী অর্থ সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেওয়া হচ্ছে।  দেশের ৩৬টি পৌরসভায় দারিদ্র্য বিমোচন, লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণ, সুশাসন প্রতিষ্ঠা এবং উন্নত নগর অবকাঠামো নির্মাণের মাধ্যমে উন্নত নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে জানান ইআরডি সচিব কাজী শফিকুল আযম।অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, প্রকল্পটির দ্বিতীয় পর্যায় পর্যন্ত ৩১টি পৌরসভা অন্তর্ভূক্ত ছিল। এখন নতুন করে আরও পাঁচটি পৌরসভা এতে যুক্ত হয়েছে।পৌরসভাগুলো হচ্ছে- মুক্তাগাছা, শেরপুর, রাজবাড়ি, নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ, কোটালিপাড়া, টুংগীপাড়া, বেনাপোল, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, মাগুরা, মেহেরপুর, চারঘাট, বেড়া, ঈশ্বরদী, শাহজাদপুর, জয়পুরহাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, লাকসাম, নবীনগর, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, লক্ষ্মীপুর, রাঙামাটি, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, ছাতক, নীলফামারী, লালমনিরহাট, পঞ্চগড়, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ ও কুষ্টিয়া।