আইফোনে ফেইস আইডি, মঞ্চেই বিভ্রাট!

এই ব্যবস্থায় ব্যবহারকারী তার আইফোন X-এর দিকে তাকালেই তার চেহারা শনাক্ত করা হবে ও ডিভাইসটই আনলক করা হবে।  এই ফিচার দেখাতে ১২ সেপ্টেম্বরের ইভেন্টে মঞ্চে ছিলেন অ্যাপলের জেষ্ঠ্য ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্রেইগ ফেডেরিঘি। মঞ্চে ফিচার প্রদর্শনের সময় কাজ করছিল না ফেইসআইডি, এক পর্যায়ে পাসকোড ব্যবহার করে লগ ইন করতে বাধ্য হন তিনি- বলা হয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্যবিষয়ক মার্কিন সাইট বিজনেস ইনসাইডার-এর প্রতিবেদনে।   প্রথমবার ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি বলেন, “চলুন আরেকবার চেষ্টা করি।”এই ঘটনায় ফেডেরিঘির কোনো দোষ ছিল না বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ, এমনকি দোষের আঙ্গুল আইফোন X-এর দিকেও উঠেনি। টাচ আইডি ব্যবস্থা থাকা আইফোনগুলো রিস্টার্ট নেওয়ার পর টাচ আইডি ব্যবস্থা কার্যকর হওয়ার আগে ব্যবহারকারীকে তাদের পাসকোড দিতে বলে। একইভাবে নতুন ফেইস আইডি ব্যবস্থাও একইভাবে কাজ করে। আর মঞ্চের ডিভাইসটি সেসময় রিস্টার্ট হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। ছবি- অ্যাপল অ্যাপলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আইফোন X-এ উন্নত ইনফ্রারেড ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারী আইফোনের দিকে তাকালেই চেহারা শনাক্ত করে সেটি আনলক হয়ে যাবে। অন্ধকারেও কাজ করবে এই টাচ আইডি। এমনকি গ্রাহক তার চুলের স্টাইল বা বেশ পরিবর্তন করতে পারলেও তার মুখ শনাক্ত করতে পারবে নতুন ফেইস আইডি। ২০১৫ সালে মাইক্রোসফট-এর উন্মোচন করা সারফেইস ডিভাইসগুলোতে থাকা উইন্ডোজ হ্যালো ফিচারও এভাবে কাজ করে।ছবি- অ্যাপলঅ্যাপল আরও বলে, তারা হলিউড-এর বিশেষ ইফেক্ট যুক্ত উইজার্ড ব্যবহার করে এটিকে আরও সুরক্ষিত করে তুলেছে।ফ্রেডেরিঘি বলেন, “আপনার সঙ্গে অন্য কারও চেহারা দেখতে যথেষ্ট মিল থাকতে পারে যা দিয়ে এই ব্যবস্থা লঙ্ঘন করা যাবে। কিন্তু এমন ব্যতিক্রম ১০ লাখে একটি।”বিজনেস ইনসাইডার