‘ইনজুরি হলেও তো সাকিবকে ছাড়া খেলতে হতো’

সাকিব আল হাসান যে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্টে থাকছেন না তা চাউড় হয়ে গিয়েছিল দল ঘোষণার একদিন আগেই। এরপরও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু এই ইস্যু এড়াতে পারেননি। তাই সাকিবের বিশ্রামের সিদ্ধান্তটা ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেছেন নিজের মতো করে| আর সাকিবের নেওয়া সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতে বলেছেন। আশা করেছেন দ্রুতই তিনি ফিরবেন টেস্টে।মিরপুরে দল ঘোষণা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সোমবার মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, সাকিব বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার, ওকে দলে না পাওয়াটা অবশ্যই চিন্তার বিষয়। সে ছুটি চেয়েছে, মঞ্জুর হয়েছে। এখন সেটা নিয়েই চলতে হবে। ইনজুরি হলেও তো সাকিবকে ছাড়া খেলতে হতো ক্যারিয়ারের এই উড়ন্ত সময়ে কেন আসল বিরতির প্রশ্ন। ৮ বছর পর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের এই সুযোগকে তো কাজে লাগানোর কথা। এমন সব প্রশ্ন যখন বাতাসে ভাসছে তখন সাকিবের সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানাতে বললেন প্রধান নির্বাচক| তিনি বলেন, শারীরিক চাহিদা ও মানসিক ব্যাপারটা ভাবতে হবে। আমি যেহেতু খেলোয়াড় ছিলাম, আমি জানি মানসিকভাবে শতভাগ ফিট না থাকলে কিন্তু পারফরম্যান্স শতভাগ ভালো হয় না। সে হিসেবে ওর সিদ্ধান্তটাকে সম্মান জানানো উচিত। ৬ মাস টেস্ট থেকে দূরে থাকার আবেদন করলেও ক্লান্তি কাটিয়ে দ্রুতই ফিরবেন সাকিব সেই আশাবাদও ব্যক্ত করলেন নান্নু। তিনি বলেন, আপাতত দুই টেস্টের জন্য তাকে বিরতি দিয়েছি। হয়ত এই সিরিজের পরই বা একটা টেস্ট শেষেই সে দলের সঙ্গে যোগ দিবে। সে আমাদের সেরা ক্রিকেটার। আমরা আশাবাদী, সে দ্রুত ফিরবে।