উড়িষ্যায় গাছপালা উপড়ে পড়েছে, বিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পানি লাইন

ভারত মহাসাগর থেকে আসা সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড় ফনি উড়িষ্যায় শুক্রবার আঘাত হানলে গাছপালা উপড়ে পড়েছে, বিদ্যুৎ ও...ভারত মহাসাগর থেকে আসা সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড় ফনি উড়িষ্যায় শুক্রবার আঘাত হানলে গাছপালা উপড়ে পড়েছে, বিদ্যুৎ ও পানি লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।-খবর এএফপিরএছাড়াও এতে নিম্নাঞ্চলে ব্যাপক জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এটি তিন থেকে চার ক্যাটাগরির হ্যারিকেন শক্তি নিয়ে আঘাত হানে।এর আগে ১৯৯৯ সালে উড়িষ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে ১০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হন।

অন্ধ্র প্রদেশ থেকে দক্ষিণের উপকূলে বেশ কিছু গাছপালা উপড়ে যাওয়ার ছবি প্রকাশ করেছে ভারতের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ।ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার গতির বাতাসের শক্তি নিয়ে ভারতের উড়িষ্যায় আঘাত হেনেছে অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় ফনি।শুক্রবার সকাল ৮টায় ফনি রাজ্যটির উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করলে সেখানে প্রবল ঝড়ো হওয়া বইছে।ভারতের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, গোপালপুর আর চাঁদবালির মাঝামাঝি এলাকা দিয়ে উড়িষ্যা অতিক্রম শুরু করেছে ফনি।উড়িষ্যার রাজধানী ভুবনেশ্বরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের পরিচালক এইচআর বিশ্বাস বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, দেড় ঘণ্টা আগে আমরা ১৭৫ থেকে ১৮০ কিলোমিটার বাতাসের গতি রেকর্ড করেছি।এদিকে ফনি আঘাত হানার আগেই উড়িষ্যা থেকে ১০ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ সময় লোকজনকে বাইরে বের না হতে বলা হয়েছে।ঝড় মোকাবেলায় সরকার পুরোপুরি প্রস্তুত জানিয়ে লোকজনকে আতঙ্কগ্রস্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন উড়িষ্যার মুখমন্ত্রী নভিন পাটনাইক।।