'সিরিজ মিস করায় আফসোস হচ্ছে'

বাংলাদেশের বামহাতি পেসার ঈদের ছুটি পেয়েছেন বটে। তবে চোট তাকে পুরোপুরি ছুটি দেয়নি। তাই ঈদের ছুটির মধ্যেও চোট নিয়ে কাজ চালিয়ে যেতে হবে মুস্তাফিজের। এমন কি যাওয়ার যাওয়ার আগেও ঢাকায় তার চলছে ইনজুরি কাটিয়ে ওঠার লড়াই। চোটে পড়ার কারণে তাকে বেশ দোষারোপা করা হয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচকরা তো রাখঢাক ছাড়াই রাগ দিখিয়েছেন ফিজের ওপর। কিন্তু তিনি আর কাকে দুষবেন। দায় দিলেন ভাগ্যকে। আইপিএলের শেষ ম্যাচে চোট নিয়ে ফেরেন তিনি। দেশে ফিরে দলের সঙ্গে অনুশীলন করেন। কিন্তু চোটের কারণে তাকে দু'দিনের বিশ্রাম দেওয়া হয়। কিন্তু দু'দিনে তিনি ফিরতে পারেননি। পেরিয়ে গেছে সপ্তাহ দুই। চোটের বিষয়ে মুস্তাফিজ বলেন, 'খেলতে গেলে এমন ইনজুরি হবেই। এখন আমার কপালে ছিল, আমার কীই বা করার ছিল।'চোটের কারণে ফিজ মিস করেছেন আফগান সিরিজ। সিরিজ মিস করায় আফসোস আছে তার মধ্যে। সবাই যেভাবে বলছে হয়তো তিনি থাকলে আফগানদের বিপক্ষে ধবল ধোলাই হতে হতো না। কাটার মাস্টার এ বিষয়ে বলেন, 'আফসোস তো হয়ই। আমি চেষ্টা করি সবসময় ফিট থাকার। তার পরও ইনজুরি হলে তো কিছু করার নেই।'চোট থেকে সেরে উঠতে গ্রামের বাড়িতে গিয়েও বসে থাকার সুযোগ নেই মুস্তাফিজের। তিনি বলেন, 'চোট অনেকটাই ঠিক হয়ে এসেছে। ঈদের ছুটিতে বাড়ি গিয়েও চালিয়ে যেতে হবে কাজ। তবে ভালো অবস্থানে আছেন বলে জানান, 'এখন অনেক ভালো অবস্থা। প্রায় তিন সপ্তাহ হয়ে গেছে। এখন পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় আছি। প্রতিদিনের রুটিন মেনে চলার চেষ্টা করছি।'ঈদের ছুটিতে চোট নিয়ে কাজ করবেন বলে ফিজ উল্লেখ করেন, 'ঈদের জন্যও কয়েকদিনের প্রোগ্রাম দেওয়া হয়েছে। যে পরিকল্পনা দেওয়া হয়েছে, সেটি মেনে চলার চেষ্টা করছি। টেস্ট দলে থাকতে পারলেও ভালো লাগত।'