শান্তিনিকেতনে বাংলাদেশ ভবনের জাদুঘর ও গ্রন্থাগার খুলছে শিগগিরই

শান্তিনিকেতনে বাংলাদেশ ভবনের জাদুঘর ও গ্রন্থাগারের দায়িত্ব ন্যাশনাল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিয়েছে।বৃহস্পতিবার ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজকলি সেনের উপস্থিতিতে এই দায়িত্বভার হস্তান্তর করা হয়। পরে উপাচার্য জাদুঘর ও গ্রন্থাগার ঘুরে দেখেন এবং জানান, খুব তাড়াতাড়ি এ দুটি সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, গত ২৫ মে বাংলাদেশ ভবনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রায় ২৫ কোটি টাকা খরচে এই ভবন তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু উদ্বোধন হলেও ভবনের একাধিক কাজ বাকি ছিল। ভারত সরকারের ন্যাশনাল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি এই ভবন তৈরির দায়িত্বে রয়েছে। পর্যটকদের কাছে এ ভবনের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ জাদুঘর ও গ্রন্থাগার। জাদুঘরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে তুলে ধরা হয়েছে।উপাচার্য সবুজকলি সেন বলেন, 'বাংলাদেশ ভবনের মিউজিয়াম ও গ্রন্থাগারের দায়িত্ব ন্যাশনাল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি থেকে বিশ্বভারতী হাতে নিয়েছে। এ ছাড়া ভবনের বেশ কিছু কাজ এখনও বাকি। আমরা দ্রুত এই ভবনের মিউজিয়াম ও গ্রন্থাগার সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দিতে চাই।'