যে কারণে অতিরিক্ত কলা খাবেন না

বারমাসি ফল হিসেবে সবচেয়ে সহজলভ্য ও জনপ্রিয় ফল হলো কলা। স্বাদ ভালো হওয়ায় অনেকেই অন্য ফলের চাইতে কলা খাওয়াটাই বেশি পছন্দ করেন। কিন্তু সুস্বাদু ও পুষ্টিকর এই ফলেরও রয়েছে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া। জেনে নিন যে কারণে বেশি কলা খাওয়াটা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ১. কোষ্ঠকাঠিন্যযাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা রয়েছে, তারা কাঁচা কলা খেলে এই সমস্রা থেকে কখনোই মুক্তি পাবেন না। কলায় থাকা ফাইবার অন্ত্রের পানি শোষণ করে নেয়, যার ফলে দেখা দিতে পারে পানিশূণ্যতাও। আর একারণেই অতিরিক্ত কলা খাওয়া এড়িয়ে চলা উচিৎ।২. পুষ্টির ভারসাম্যহীনতাঅন্য ফলের বদলে কেবল কলা খেলেই সুস্থ থাকা যাবে- এমনটি ভাবা ভুল। বরঞ্চ অন্য ফলে থাকা অন্য পুষ্টি উপাদানের শূন্যতায় ভুগতে পারেন আপনি, যা কেবল কলা খেয়ে পোষাবে না।৩. হজমে সমস্যাখাবারে নির্দিষ্ট পরিমাণ আঁশ থাকা হজমের পক্ষে সহায়ক। কিন্তু এই আঁশ অতিরিক্ত আহরণ করলে হতে পারে উল্টোটা। ফলে পেট ব্যাথা, গ্যাসের সমস্যা, পেট ফাঁপার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।৪. ওজন বৃদ্ধিকলা অত্রন্ত ক্যালরি সমৃদ্ধ। ভাজা পোড়া খাওয়ার চেয়ে নাশতা হিসেবে কলা খাওয়া ভালো, কিন্তু দুটির জায়গায় তিনটি কলা খেলেই তা গিয়ে ঠেকবে ৩০০ ক্যালরিতে। এতেই হু হু করে বাড়বে ওজন ৬. ঝিমুনিকলায় আছে ট্রিপটোফ্যান নামের একধরণের অ্যামাইনো এসিড। এটি মানুষকে ঘুমাতে সাহায্য করে। এছাড়াও কলায় থাকা শর্করার কারণে মস্তিষ্কে সেরোটোনিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এর কারণে সারাদিন ঘুম ঘুম পেতেই পারে।৭. দাঁতের সমস্যাকলায় থাকে প্রচুর পরিমাণে চিনি। অতিরিক্ত কলা খেলে এর কণা দাঁতের ফাঁকে রয়ে যায়। এর থেকেই দেখা দিতে পারে দাঁতের নানা ধরণের সমস্যা।