বাড়তি ভাড়া নেওয়ায় তিন বাস কাউন্টার বন্ধ

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বুধবার বিকালে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।তিনি বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগে তিনটা কাউন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একটা হচ্ছে হিমাচল পরিবহন, একুশে পরিবহন ও রয়েল পরিবহন। এই তিনটি পরিবহনের সায়েদাবাদের কাউন্টার বন্ধ আছে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগে। বিআরটিএ র নির্বাহী হাকিম মুহাম্মদ আব্দুর রহিম সুজন ওই অভিযান পরিচালনা করেন।সুজন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সায়দাবাদ থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রুটে চলাচলকারী হিমাচল পরিবহন এবং নোয়াখালীর মাইজদী অভিমুখী চলাচলকারী একুশে পরিবহনের কাউন্টার অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একই অভিযোগে মালিক সমিতি ঢাকা থেকে মাইজদী রুটের রয়েল পরিবহনের কাউন্টারটি বন্ধ করে দিয়েছে।বাড়তি ভাড়াসহ অন্য কোনো অনিয়ম হচ্ছে কি না সে বিষয়গুলোতে নজর রাখতে কয়েকটি মনিটরিং সেল কাজ করছে বলে জানান সড়ক পরিবহনমন্ত্রী কাদের।তিনি বলেন, সকালে গাবতলীতে গিয়েছি, সেখানে কোনো অভিযোগ পাইনি। এখানে পেয়েছি তিনটি কাউন্টার বন্ধ করে দিয়েছি। প্রয়োজনে আরও কঠিন শাস্তি দেওয়া হবে। সেন্ট্রাল মনিটরিং সেল আছে। সেখান থেকে তারা খোঁজ নিচ্ছে। সড়কের জন্য কোথাও যানজট হবে না দাবি করে মন্ত্রী বলেন, বিকল গাড়ি রাস্তায় নামলে সমস্যা হতে পারে। যদি রাস্তায় আনফিট গাড়ি বিকল হয়ে যায় তখন সমস্যা হতে পারে। রাস্তার জন্য কোথাও যানজট হবে না। চালকদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, রং সাইডে আসা, তাড়াতাড়ি যাওয়ার জন্য ওভার স্পিডে যাওয়া ও মোবাইলে ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালানো পরিহার করতে হবে। চালকদের রাত-দিন বিরতিহীনভাবে গাড়ি চালানো থেকে বিরত রাখতে মালিকদের অনুরোধ করেন তিনি।