প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখলো মুম্বই

টেস্ট ম্যাচ থেকে উঠে যেতে পারে টস প্রক্রিয়া। এমন কিছু হতে পারে আগামী বছর শুরু হতে যাওয়া টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে। স্বাগতিক দলকে পিচের সুবিধা না দিতেই এমন সিদ্ধান্ত আসতে পারে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) কাছ থেকে। আইসিসি ক্রিকেট কমিটি মে মাসের শেষ দিকে ভারতের মুম্বইতে এক সভায় বসবে। তার আগে কমিটির ব্রিফিং নোটে দেখা যাচ্ছে, টেস্ট ম্যাচের পিচ তৈরিতে স্বাগতিক দলের নাক গলানো এখন একটি মারাত্মক সমস্যা। কমিটির একাধিক সদস্য বিশ্বাস করেন সফরকারী দলকে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই টস দেয়া উচিত।  ১৮৭৭তে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মধ্যে ইতিহাসের প্রথম টেস্ট শুরু হয়েছিল কয়েন টস দিয়ে। তখন থেকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কে আগে ব্যাট বা বল করবে এই সিদ্ধান্ত নির্ধারিত হয়ে আসছে টস দিয়ে। স্বাগতিক অধিনায়ক কয়েন টস করেন, এবং সফরকারী হেড বা টেইল বলে সিদ্ধান্ত দেন। টস বাতিলের সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে সফরকারী অধিনায়ক ব্যাট বা বল করার সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। বর্তমানে স্বাগতিক বোর্ডগুলো কন্ডিশন ও নিজ দলের শক্তিমত্তা অনুযায়ী পিচ বানায়। এতে করে টসের গুরুত্ব এখন অনেক বেশি। 'টস জয়, ম্যাচ জয়' এমন একটা কথা প্রচলিত হয়েও গেছে। তাই এটি বাদ দেয়ার জন্য আলোচনার উদ্দেশ্যে আইসিসি'র ক্রিকেট কমিটি নিজেদের প্রস্তুত করছে। ২০১৬ থেকে ইংলিশ কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে টসে সন্তুষ্ট না হলে সফরকারী অধিনায়ক বল করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগে প্লে-অফের রেসে টিকে থাকতে হলে এ ম্যাচে জয়ের বিকল্প ছিলনা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের। বুধবার শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে ৩ রানে হারিয়ে এ আশা বাঁচিয়ে রাখলো মুম্বই। অন্যদিকে হেরে প্লে-অফ অনিশ্চিত হয়ে গোলা পাঞ্জাবের। ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্টে তাদের। সমান ম্যাচে ১২ পয়েন্টে মুম্বই’র। কিন্তু রান রেটে পাঞ্জাবের চেয়ে এগিয়ে তারা। ফলে ছয় থেকে চার নম্বরে উঠে এলো রোহিতের দল। আর চার থেকে ছয় নম্বরে নেমে গেল অশ্বিনের দল। এদিন মুম্বইয়ের দেয়া ১৮৬ রানের লক্ষে ব্যাট হাতে শুরুটা ভালোই করে পাঞ্জাব। ৩.৫ ওভারে মাথায় ক্রিস গেইল ১১ বলে ১৮ রান করে ফেরত যান। দ্বিতীয় উইকেটে লোকেশ রাহুল ও অ্যারন ফিঞ্চ হাল ধরেন। ফিঞ্চ করেন ৩৫ বলে ৪৬ রান। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রাহুল করেন ৬০ বলে ৯৪ রান। রাহুল আউট হওয়ার সময় পাঞ্জাবের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল তখন ৯ বলে ২১ রান। সেখান থেকে ৩ রানে ম্যাচ হারে প্রীতি জিনতার দল। এদিন মুম্বইয়ের হয়ে জসপ্রীত বুমরাহ ৪ ওভারে ১৫ রানে ৩ উইকেট নেন। এর আগে ব্যাট হাতে মুম্বইয়ের হয়ে কাইরন পোলার্ড ২২ বলে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন। পাঞ্জাবের হয়ে অ্যান্ড্রু টাই ১৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন।