পরিসংখ্যানও কথা বলছে না সৌদি আরবের পক্ষে

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচটা নিয়ে অনেকেরই আক্ষেপ থাকতে পারে। ৩২ দলের মধ্যে র‌্যাংকিংয়ের সবচেয়ে পেছনের দল দুটির লড়াই দিয়ে শুরু হচ্ছে এবারের বিশ্বকাপ যাত্রা। রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর প্রথম দিন মাঠে নামছে অপেক্ষাকৃত দুই দুর্বল দল রাশিয়া ও সৌদি আরব। ফিফা র‍্যাংকিংয়ে সৌদি আরবের অবস্থান ৬৭। আর স্বাগতিক রাশিয়ার অবস্থান ৭০তম অবস্থানে। বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায় শুরু হবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচটি। বাংলাদেশে সরাসরি ম্যাচটি দেখাবে বিটিভি, মাছারাঙা ও নাগরিক টিভি।র‌্যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকলেও প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক হওয়ার কারণে রাশিয়াকে এগিয়ে রাখছেন ফুটবল বোদ্ধার। তবে ফুটবলীয় পরিসংখ্যান কিন্তু ভিন্ন কথা বলছে। এর আগে রাশিযা ও সৌদি আরব একবারই মুখোমুখি হয়েছে। সেটিও ১৯৯৩ সালে, প্রস্তুতি ম্যাচে। সেই ম্যাচে ৪-২ গোলে জয় পায় এশিয়ার পরাশক্তি সৌদি আরব।একমাত্র জয়ের রেকর্ড মনে রেখেই রাশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে সৌদি আরব। প্রথম ম্যাচটিতে কোনোভাবেই হার চাইবে না এশিয়ান দলটি। রাশিয়ার বিপক্ষে জয়ের রেকর্ড থাকলেও বিশ্বকাপে সৌদি আরবের পরিসংখ্যান কিন্তু মোটেও সুতসই নয়। ১৯৯৪ সালে প্রথম বিশ্বকাপ খেলে সৌদি আরব। প্রথমবারেই চমকে দিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে চলে যায় দলটি। গ্রুপ পর্বে মরক্কো ও বেলজিয়ামকে হারায় তারা। এরপরের বিশ্বকাপগুলো সৌদি আরবের জন্য দারুণ হতাশার। ১৯৯৮, ২০০২ ও ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের বাধাই পার হতে পারেনি তারা। বিশ্বকাপে সর্বশেষ ১০ ম্যাচে জয়হীন রয়েছে সৌদি আরব। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচটিও বড়ই অপয়া সৌদি আররে জন্য। এর আগের চারটি বিশ্বকাপের একটিতেও প্রথম ম্যাচে জয় পায়নি তারা। বিশ্বকাপে সর্বশেষ ১৩ ম্যাচে মাত্র একটি গোল পেয়েছে এশিয়ার দেশটি। সর্বশেষ আট আক্ষাতে কোনো ইউরোপীয় দলকে হারাতে পারেনি সৌদিরা।