দ. কোরিয়া অপদার্থ, কান্ডজ্ঞানহীন: উত্তর কোরিয়া

কোরিয়া উপদ্বীপে যুক্তরাষ্ট্র-দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়া নিয়ে ক্ষুব্ধ উত্তর কোরিয়া তাদের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত সিউলের সঙ্গে আলোচনায় যাবে না বলে হুমকি দিয়েছে।উত্তর কোরিয়ার প্রধান আলোচক এবং দেশটির শান্তিপূর্ণ পুনরেকত্রীকরণ কমিটির চেয়ারম্যান রি সন-গোন বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কোরিয়া সরকারকে অপদার্থ ও কান্ডজ্ঞানহীন আখ্যা দেন। তার এমন বক্তব্যের পর যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে বৈঠকের অনিশ্চয়তা দূর করতে দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যস্থতার চেষ্টা হোঁচট খেল বলেই মনে করা হচ্ছে।যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক অস্ত্র ত্যাগ করার জন্য চাপ দিলে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে উত্তর কোরিয়া বৈঠক নাও করতে পারে বলে বুধবার হুমকি দিলে দেশটির নেতা কিম জং-উনের সঙ্গে ট্রাম্পের ১২ জুনের নির্ধারিত শীর্ষ বৈঠক নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়।এ অনিশ্চয়তা দূর করার জন্য দুই পক্ষের মধ্যে ব্যবধান কমিয়ে আনতে মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দিয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়া। কিন্তু তারা প্রস্তাবটি দিতে না দিতেই রি সং-গোনের গাল-মন্দে উত্তর কোরিয়ার আগের সেই ক্ষুব্ধ বাক্যবানই আবার ফিরে এল।যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নেওয়া এবং উত্তর কোরিয়ার পক্ষত্যাগী একজনকে সিউল ন্যাশনাল এসম্বলি তে কথা বলার সুযোগ দেওয়ার জন্যও দক্ষিণ কোরিয়ার সমালোচনা করেছেন সন-গোন। উত্তর কোরিয়ার বার্তা সংস্থা কেসিএনএ এক বিবৃতিতে একথা জানিয়েছে।এতে আরো বলা হয়, উদ্ভূত এই মারাত্মক পরিস্থিতি, যাকে কেন্দ্র করে উত্তর-দক্ষিণ কোরিয়ার উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ভেস্তে গেছে, সেটির কোনো সমাধান না হলে আবারো সরাসরি আলোচনায় বসা আর কখনো সহজ হবে না। উত্তর কোরিয়া গত মঙ্গলবার যৌথ সামরিক মহড়ার প্রতিবাদে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে নির্ধারিত একটি বৈঠক বাতিল করেছে। পরে আরেকটি বিবৃতি দিয়ে তারা ট্রাম্পের সঙ্গে নির্ধারিত বৈঠক থেকেও সরে আসতে পারে বলে হুমকি দেয়।