‘দারাজের’ বৈশাখ উদযাপন

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ বাংলাদেশ ৩০ শে মার্চ থেকে ১৪ই এপ্রিল পর্যন্ত নানান রকম আকর্ষণীয় ডিল দিয়ে  দারাজ বৈশাখী মেলা উদযাপন করছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য- ফ্রি ডেলিভারি, সব পণ্যের উপর ৭৭ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট, ফ্ল্যাশসেল,  ব্র্যান্ড ভাউচার ইত্যাদি। ক্যাম্পেইনটির কো-স্পন্সর হিসেবে আছে- হারপিক, টাটাটি, সানসিল্ক, স্কয়ার ইলেকট্রনিক্স, ডেটল এবং রেডিও টুডে।এই সময়ের জনপ্রিয় তারকা সাফা কবির এবং নুসরাত ফারিয়া ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে টিভি এবং দারাজ ফেসবুক লাইভে অংশগ্রহণ করেছেন।এছাড়া গতবারের মত এবারও পহেলা বৈশাখ ক্যাম্পেইনে আছে নানা রকম আকর্ষণীয় ভাউচার।গ্রাহকদের বিপুল আগ্রহ, উদ্দীপনা ও অনুরোধের কারণে এবারও ডাবল টাকা ভাউচার ছাড়া হয়েছিল ৬ এপ্রিল।যার স্টক শেষ হয়ে যায়  মাত্র ৩ মিনিটের মধ্যে।পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে ক্যাম্পেইনের পঞ্চম দিনেই গতবারের তুলনায় শত গুণ বেশি বিক্রয়  হয়েছে এবং নবম দিনেই বিক্রয়ের পরিমাণ দুইশত গুণে পৌঁছে গেছে।ক্যাম্পেইন চলাকালীন সাধারণ দিনের তুলনায় ছয়গুণ বেশি পণ্য বিক্রিত হয়েছে।দারাজ বাংলাদেশের বৈশাখী মেলায় সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্র্যান্ড গুলো ছিল স্যামসাং, হরলিক্স, শাওমি এবং লাক্স। সবচেয়ে দ্রুত শেষ হয়ে যায় মোবাইল ক্যাটাগোরির  বেস্ট ডিলে থাকা মোবাইল ফোনগুলো। সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া পণ্যগুলো হল ছেলেদের ফ্যাশন, মোবাইল ফোন এবং বেবি, কিডস অ্যান্ড টয়সের পণ্য।এছাড়াও দারাজ বাংলাদেশের কো-স্পনসর ইউনিলিভারের পণ্য ছিল সর্বাধিক বিক্রিত পণ্যগুলোর মধ্যে অন্যতম। গত ৭ এপ্রিল যেকোনো পণ্য অর্ডার করলেই ক্রেতারা পণ্যটি ফ্রি ডেলিভারি পেয়েছেন।দারাজ বৈশাখী মেলা উপলক্ষ্যে দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, এবছর আমরা টানা তৃতীয়বারের মত বৈশাখী মেলা উদযাপন করছি, যেখানে আমরা আবার আমাদের গ্রাহকদের জন্য সেরা ডিল নিয়ে হাজির হয়েছি। বিগত বছরগুলোর মতো যথারীতি এবারও আমরা আশাতীত সাফল্য লাভ করেছি।সংবাদ বিজ্ঞপ্তি