চুমুর ‘অপরাধে’ দুই নারীকে নামিয়ে দিলেন উবার চালক

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের ওই ঘটনা নিয়ে সেখানকার ট্যাক্সি অ্যান্ড লিমোজিন কমিশন এখন তদন্ত করছে। আর এ ঘটনায় আহমাদ এল বাওতারি নামের ওই চালকের ট্যাক্সি লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। নিউ ইয়র্কে উবারের মাধ্যমে ট্যাক্সি চালাতে এই লাইসেন্স দরকার হয়।আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৬ বছর বয়সী অ্যালেক্স লাভাইন এবং ২৪ বছর বয়সী এমা পিচি প্রায় দুই বছর ধরে প্রেম করছিলেন। এ খবর প্রকাশের আগের সপ্তাহে একটি বারে এক বন্ধুর জন্মদিন উদযাপনের পর তারা ম্যানহাটনে ফিরছিলেন। পথে ওই ট্যাক্সির পেছনে মুখোমুখি বসে তারা চুমু খেয়েছিলেন বলে মার্কিন সংবাদমাধ্যমটিকে জানিয়েছেন লাভাইন। লাভাইন বলেন, মাঝখানের আসনটি খোলা ছিল। আমরা যাত্রাপথে আলাপ করছিলাম আর এক সময় আমরা মাঝখানে ঝুঁকি আর পরষ্পরকে চুমু খাই। বিষয়টা এর বেশি কিছু ছিলো না। এই ঘটনায় উবার চালক যাত্রীদের নামিয়ে দেওয়ার অধিকার রাখেন কি? উবারের ওয়েবসাইটে তাদের নীতিমালায় বলা আছে, গাড়িতে অন্য কারও শরীর ধরা বা ফ্লার্ট করা আপনার উচিৎ নয়। সেই সঙ্গে চালক বা সহযাত্রীর সঙ্গে কোনো ধরনের যৌন আচরণ করা যাবে না, তা যেমনই হোক না কেন।  কিন্তু লাভাইন আর পিচি র দাবি হচ্ছে, তারা একবারই চুমু খেয়েছেন আর বড়াবাড়ি রকমের ঘনিষ্টও হননি। লাভাইন বলেন, আমরা বুঝি গাড়িতে কেউ শারীরিকভাবে ঘনিষ্ট হলে তা অন্য কারও জন্য অস্বস্তিকর হতে পারে। কিন্তু সেখানে তেমন কিছু হয়নি। তারা জানান, চুমু খাওয়ার কয়েক মিনিট পর চালক ম্যানহাটনের রাস্তার পাশে তাদের গন্তব্য থেকে কিছুটা দূরেই গাড়ি থামান, হেঁটে পেছনের যাত্রীদের কাছে আসেন ও দরজা খুলে তাদেরকে বের হয়ে যেতে বলেন। চালক তাদেরকে বলেন, এ ধরনের চুম্বন অবৈধ আর অমর্যাদাকর । এদিকে চালক এল বাউতারি মার্কিন দৈনিক নিউ ইউর্ক ডেইলি নিউজ-কে বলেছেন, শুধু চুম্বনই নয়, গাড়িতে ওই যাত্রীদের পুরো ব্যবহারেই তিনি অস্বস্তিবোধ করেছেন। তারা তাদের ফোনে উচ্চশব্দে ভিডিও চালিয়েছেন আর একজন আসনের উপরে তার পা উঠিয়ে রাখেন বলেন অভিযোগ করেন বাউতারি।অন্যদিকে, লাভাইন একই কথা আবারও বলেন- তারা কোনো বড়াবাড়ি রকমের আচরণ করেননি।চালক আর যাত্রী উভয় পক্ষই উবারের কাছে এই ঘটনা নিয়ে অভিযোগ করেছে।উবার তাদের ১৫ ডলার ভাড়া ফেরত দিয়েছে বলে সিএনএন-কে জানিয়েছেন যাত্রীদ্বয়। উবারের মুখপাত্র সুসান হেনরিক বলেন, প্রতিষ্ঠানটি ও চালকের অ্যাপ ব্যবহারের অনুমতি বাতিল করেছে আর তারা ঘটনার তদন্ত করছে। তিনি বলেন, উবার কোনো ধরনের বৈষম্য সহ্য করে না আর আমরা যাত্রীদের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছি। এই ঘটনায় নিউ ইয়র্ক শহরে সমকামী যুগল হিসেবে তাদের ধারণা বদলে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন লাভাইন আর পিচি।