গ্রিজম্যান নৈপুণ্যে ইউরোপা চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো

আবারও জ্বলে উঠলেন আঁতোয়া গ্রিজম্যান। তার ঝলকানিতে ফের আলোকিত হল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এ ফরোয়ার্ডের জোড়া গোলে মার্সেইকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ইউরোপা লিগ শিরোপা জিতেছে স্প্যানিশ দলটি।এ নিয়ে সবশেষ ৯ বছরে তৃতীয়বার ইউরোপীয় ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা টুর্নামেন্টের মুকুট পরল অ্যাটলেটিকো।বুধবার ফ্রান্সের লিওঁতে শুরু থেকেই ছন্দে ছিল দলটি। স্বরূপে ছিলেন গ্রিজম্যানও। মুহুর্মহু আক্রমণে মার্সেইকে ব্যতিব্যস্ত রাখেন অতিথিরা। ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় তারা। দলকে লিড এনে দেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।এগিয়ে গিয়ে আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে অ্যাটলেটিকো। তাদের একের পর এক আক্রমণ সামলাতে হিমশিম খায় মার্সেই। এর মধ্যে ৩১ মিনিটে বড়সড় ধাক্কা খায় দলটি। পায়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন তাদের অধিনায়ক পায়েত। অশ্রুসিক্ত বিদায়ে ফ্রান্সের হয়ে তার বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নও শঙ্কায় পড়ে গেল।বিরতির পরও লা লিগার সেই ছন্দময় অ্যাটলেটিকো। শুরুতেই গোল পেয়ে যায় তারা। ৫২ মিনিটে নিশানাভেদ করে ব্যবধান ২-০ করেন সেই গ্রিজম্যান। চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এটি তার ২৯তম গোল।দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর খেই হারিয়ে ফেলে মার্সেই। শেষ পর্যন্ত আর খেলায় ফিরতে পারেনি দলটি। শেষ বাঁশি বাজার খানিক আগে নিখুঁত কোনাকুনি শটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেন দলপতি গাবি।নিষেধাজ্ঞার কারণে এদিন ডাগআউটে ছিলেন না অ্যাটলেটিকো কোচ ডিয়েগো সিমিওনে। তবে ম্যাচ শেষেই শিষ্যদের সঙ্গে যোগ দেন তিনি। মাতেন শিরোপা উৎসবে। ২০১২ সালেও তার অধীনে এই প্রতিযোগিতার শিরোপা জিতেছিল দ্য ইন্ডিয়ানসরা।অ্যাটলেটিকোর জার্সিতে এটিই গ্রিজম্যানের কোনো বড় শিরোপা। দলটির হয়ে চলতি মৌসুমটা দারুণ কাটল তারা। শোনা যাচ্ছে, আগামী মৌসুমে বার্সেলোনায় ঠিকানা গাঁড়বেন তিনি।