কারাগারে খালেদার সঙ্গে দেখা করলেন চার আইনজীবী

এরা হলেন- সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এজে মোহাম্মদ আলী, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার।বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় পুরনো ঢাকার নাজিমউদ্দিন সড়কে কেন্দ্রীয় কারাগারে যান। বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে ঘণ্টাখানেক পর বেরিয়ে আসেন তারা।কারাগার থেকে বেরিয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ম্যাডামের বিরুদ্ধে যেসব মামলায় অ্যারেস্ট দেখানো হচ্ছে সেগুলোর বিষয়ে আলোচনা করতে আমরা কারাগারে এসেছিলাম। ম্যাডামের সাথে দেখা করে আমরা ওই সব মামলার বিষয়ে বিশদ আলোচনা করেছি। ম্যাডাম কাল থেকে যে পবিত্র রমজান মাস শুরু হচ্ছে সেজন্য দেশবাসীকে রমজানুল মোবারকের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। দেশবাসীর কাছে তিনি দোয়াও চেয়েছেন। খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নেই জানিয়ে খন্দকার মাহবুব বলেন, ম্যাডামের শারীরিক অবস্থা খুব খারাপ। তিনি আর্থাইটিসের ব্যথায় প্রচণ্ডভাবে কষ্ট পাচ্ছেন। তাকে সুচিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। মাসুদ আহমেদ তালুকদার জানান, খালেদা জিয়াকে ছয়টি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পর গত ৮ মার্চ কারাগারে বন্দি হন খালেদা জিয়া।ওই মামলায় হাই কোর্ট দুই মাস আগে জামিন দিলে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের আপিলে তা আটকে যায়। এ বিষয়ে শুনানির পর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ বুধবার খালেদা জিয়াকে হাই কোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখে।এই মামলায় জামিন নিয়ে আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যেই কুমিল্লায় বাসে অগ্নিসংযোগে আটজনের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলাসহ আরও ছয়টি মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। আরও দুটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখাতে বৃহস্পতিবার আদালতে আবেদন করা হয়েছে।এই প্রেক্ষাপটে খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করে এলেন তার আইনজীবীরা।এর আগে গত ৫ মে অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রেজ্জাক খান, এ জে মোহাম্মদ আলী ও ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন কারাগারে বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।