ঈদের স্বল্পদৈর্ঘ্য ‘পরানের বেহেস্ত’

মোমিন স্বপনের রচনায় চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন আইমান এ।চলচ্চিত্রটির গল্পে দেখা যাবে, বস্তির ছেলে পরান ফুল বিক্রি করে তার মায়ের জন্য ঈদে একটি শাড়ি কিনে দেওয়ার জন্য চেষ্টা করে। এদিকে আবির ও তার বন্ধুরা ঈদে একটি নতুন জায়গায় ট্যুরে যাওয়ার পরিকল্পনা করে।কিন্তু আবির পরানের ঘটনা জানার পর ট্যুর বাতিল করে। সেই টাকায় পরানের মায়ের জন্য শাড়ি ও পরানকে একটি জামা কিনে দেয়।আবিরের মনে হয়েছে পরানের মা মানে তারও মা। আর সেই মায়ের জন্য কিছু করা মানে বেহেস্তের অনুভূতি পাওয়া। আবির ও সেই অনুভূতির অংশীদার হওয়ার চেষ্টা করেছেন।নির্মাতা আইমান এ বলেন, আমাদের সমাজের অনেক ছোট ছোট বিষয় আছে যা আমাদের দৃষ্টি এড়িয়ে যায়। আমরা যারা সামর্থবান তাদের একটু সহানুভূতিতে পরানের মতো অনেক শিশুর স্বপ্ন পূরণ হতে পারে। পরানের কাছে তার মা-ই তার বেহেস্ত।ঈদ উপলক্ষে আমার এই প্রয়াস যদি দর্শকদের একটুও ভালো লাগে বা তাদের বিবেকের দরজায় নাড়া দেয় তাহলে আমার এ নির্মাণ সার্থক হবে। কমল চন্দ্র দাসের সিনেমাটোগ্রাফিতে স্বল্পদৈর্ঘ্য পরানের বেহেস্ত চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন সিয়াম, রুনাক, নাহিদ, রাইয়ান, মিরাজ ও জিসাম। এটি সম্পাদনা করেছেন বি সি ইমরান।