ইয়াহুর জরিমানা আড়াই লাখ পাউন্ড

দুই বছর আগের এই ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় হ্যাকাররা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে। এসব তথ্যের মধ্যে গ্রাহকদের নাম, ইমেইল ঠিকানা, সংকেতায়িত না করা নিরাপত্তা প্রশ্ন ও উত্তর ছিল।আইসিও র পক্ষ থেকে বলা হয়, ইয়াহু এই ডেটা রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে।ইয়াহু র পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা নীতিনির্ধারকদের পদক্ষেপ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।ওই ডেটা নিরাপত্তা লঙ্ঘনের ঘটনায় যুক্তরাজ্যের ৮০ লাখ গ্রাহক আক্রান্ত হয়েছিলেন। আইসিও র তদন্তে দেখা যায়, ইয়াহু র অধীনস্থ ডেটা প্রসেসর সঠিক ডেটা সুরক্ষা নীতিমালা য় চলেছে কিনা তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। গ্রাহকদের ডেটায় অ্যাকসেস থাকা কর্মীদের তথ্য পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে কিনা তা-এ নিশ্চিত হয়নি। যে ত্রুটিগুলোর কারণে এই নিরাপত্তা লঙহন হয়েছে সেগুলো শনাক্তের আগে যথেষ্ট সময় ছিল।২০১৭ সালে মার্কিন টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানন ভেরাইজন ইয়াহুকে কিনে নেয় ও এওএল-এর সঙ্গে একত্র করে ওথ নামের নতুন প্রতিষ্ঠান শুরু করে।