ইনজুরিতে পড়ার কারণ জানালেন লানজিনি

হাইতির বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পর দেশ ছেড়েছে আর্জেন্টিনা। ভক্তরা মেসি-আগুয়েরোদের বিদায়ী শুভেচ্ছা জানায় তখন। এক খুঁদে ভক্ত তো বিশ্বকাপ জিতে দেশে ফেরার আবদার জানান। কিন্তু বিশ্বকাপ মিশন শুরুর আগেই দল ছাড়তে হলো আর্জেন্টিনার মাঝমাঠের অন্যতম ভরসা ম্যানুয়েল লানজিনির। এমনকি রাশিয়ায় খেলা তো দূরে যাক দলের সঙ্গে রাশিয়ায় যাওয়ায় হলো না তার। তার চোটের যে অবস্থা তাকে সুস্থ হয়ে ফিরতে কমপক্ষে ছ'মাস সময় লাগবে। দ্রুত পুর্নঃবাসন না হলে সময়টা বছরের ধাক্কা নিতে পারে। লানজিনি হয়তো স্বপ্ন দেখেছিলেন মেসির পাশে খেলবেন। মেসিকে গোল করতে বল বানিয়ে দেবেন। মাঝমাঠ দাপিয়ে বেড়াবেন। কিন্তু লানজিনিকে এখন বিলাপ করতে হচ্ছে। ওয়েস্ট হ্যামের ২৫ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার ইনজুরি নিয়ে ইনস্টাগ্রামে আবেগ প্রবণ কিছু কথা লিখেছেন। জানিয়েছেন কিভাবে তিনি ইনজুরিতে আক্রান্ত হলেন। লানজিনি লেখেন, 'মার্কো রোহের কাছ থেকে একটি পাস পেয়েছিলাম। এরপর আমার পেছনে থাকা মাসচেরানোকে পাস দিতে চেয়েছিলাম। বলটি ধরে আমি উল্টো দিকে ঘুরি। কিন্তু আমার পা ঠিকঠাক মাটিতে পড়ল না। শরীরের সব চাপ পড়লো হাঁটুর উপরে। আমি তৎক্ষনাত বুঝে গেলাম কতটা খারাপ অবস্থা হয়েছে আমার।' ইনজুরির পর খুব বাজে সময় পার করছেন বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। দলের সঙ্গে তার রাশিয়ায় অনুশীলনে থাকার কথা ছিল। মেসি-আগুয়েরো-পাভনদের সঙ্গে খুনসুটি করার সময় তার। অথচ পড়ে আছেন স্পেনে। তবে তিনি যত দ্রুত সম্ভব ফিরে আসার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানান। লানজিনি বলেন, 'আমি নিজেকে অনেক প্রশ্ন করেছি। কিন্তু আমার কাছে প্রশ্নের কোন উত্তর নেই। আমি জানি কোন উত্তর খুঁজে পাবো না। তবে আমি ইতিবাচক দিক খোঁজার চেষ্টা করছি। আমি আমার পরিবার এবং সতীর্থদের থেকে সমর্থন পাচ্ছি এখন যেটা আমার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমি যখন ইনজুরিতে পড়ি মনে হয়েছিল আমার উপরে আকাশ ভেঙে পড়েছে। এটার কষ্ট এমনই ভারি ছিল।'