আলোচনায় বাপ্পি-মাহির পলকে পলকে তোমাকে চাই

কোনো প্রচারণা নেই। মুক্তির আগে ছিল না কোনো আলোচনাও।সেন্সর বোর্ড থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার তিন দিনের মাথায় মুক্তি দেয়া হয় বাপ্পি চৌধুরী ও মাহিয়া মাহি জুটির ছবি ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই।’ তবে দর্শকরা এ জুটিকে হতাশ করেননি।প্রথম সপ্তাহে দেশের ৭১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পরই দর্শকদের মধ্যে বেশ আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে। সেই রেশ রয়ে গেছে পরের সপ্তাহেও।মুক্তির দ্বিতীয় সপ্তাহেও পাওয়া গেল ছবিটির সাফল্যের খবর। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে বড় বাজেটের দুটি ছবি মুক্তি পেলেও তাদের টপকে আলোচিত হচ্ছে বৈশাখের এক সপ্তাহ আগে মুক্তি পাওয়া বাপ্পি-মাহির এ ছবি।দ্বিতীয় সপ্তাহেও ছবিটি দেশের প্রায় অর্ধশত হলে চলছে বলে জানালেন পরিচালক শাহনেওয়াজ শানু। এমন সাফল্যে উচ্ছ্বসিত নায়ক বাপ্পি।তিনি বলেন, ‘ছবিটি মুক্তির পরই প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছি। দর্শকদের সঙ্গে বসে উপভোগ করছি। ছবিটির প্রতি দর্শকদের আগ্রহ দেখে অবাক হয়েছি। কোনো ধরনের প্রচারণা ছাড়াই দর্শকরা ছবিটিকে এমনভাবে নিচ্ছেন, তাদের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা।তাদের সঙ্গে দেখা করতে প্রেক্ষাগৃহে আমিও গিয়েছি। তাদের উচ্ছ্বাস আর ভালোবাসা আমাকে মুগ্ধ করেছে। দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রায় অর্ধশত হলে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। একই সপ্তাহে বড় বাজেটের দুটি নতুন ছবি মুক্তি পেয়েছে।তাদের প্রচার প্রচারণাও অনেক ছিল। অথচ আমাদের ছবিটি কোনো ধরনের প্রচারণা ছাড়াই অন্য ছবি দুটির সঙ্গে প্রতিযোগিতা করছে। এবং আলোচিত হচ্ছে।দর্শকদের ভালোবাসার কারণেই এমনটি হচ্ছে। দর্শকদের প্রতি আমার ভালোবাসা। আশা করি আগামীতেও তারা আমার সঙ্গে থাকবেন।’