আবারও জেল হতে পারে রাজপাল যাদবের

২০১০ সালে ‌আতা পাতা লাপাতা ‌ নামের একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য দিল্লির এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৫ কোটি রুপি ঋণ নিয়েছিলেন অভিনেতা রাজপাল যাদব ও তার স্ত্রী।ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস সূত্রে খবর, দিল্লির ব্যবসায়ী মুরলী প্রজেক্টের মালিক এমজি আগরওয়ালের থেকে ২০১০ সালে ৫ কোটি রুপি ঋণ নেন বলিউডের কৌতুক অভিনেতা রাজপাল এবং তার স্ত্রী রাধা।এই টাকা দিয়েই আতা পাতা লাপাতা ছবিটি পরিচালনা করেন রাজপাল। ২০১২সালে ছবিটি মুক্তি পেলেও বক্স অফিস সাফল্য পায়নি । ফলে রাজপাল আর্থিক অসুবিধার মধ্যে পড়েন ।ছবি মুক্তির পরও টাকা ফেরত না দেওয়ায় এই  অভিনেতা এবং তার স্ত্রীর বিরুদ্ধেই দিল্লির এক আদালতে মামলা দায়ের করেন আগরওয়াল ।সেই মামলার শুনানিতেই গত ১৪এপ্রিল আদালত রাজপাল যাদব এবং তার স্ত্রী রাধা যাদব সহ তাদের কোম্পানিকে দোষী সাব্যস্ত করে ।রাধা এবং রাজপাল এই মামলাতেই ২০১৩ সালে রাজপালের আইনজীবী আদালতে মিথ্যে নথিপত্র পেশ করায় ১০ দিনের কারাদণ্ড হয় রাজপালের । চারদিন জেলে কাটিয়েওছেন তিনি ।রাধা এবং রাজপাল২০১৫তে আগরওয়ালকে ১.৫৮ কোটি রুপি ফেরত দেবার পর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন একমাসের মধ্যে বাকি অর্থ পরিশোধ করবেন । কিন্তু কথা না রাখায় আবারও আদালতের দ্বারস্থ হন এই ব্যবসায়ী ।এএনআই সূত্রে খবর, গত শনিবার রাজপাল ও তার স্ত্রীকে দোষী সাব্যস্ত করলেও সাজা ঘোষণা হবে আগামী ২৩ এপ্রিল ।ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের  শাহজাহানপুরে জন্ম বলিউডের এই কৌতুক  অভিনেতার। লক্ষ্ণৌ থেকে অভিনয় শিখে দিল্লির ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা থেকে অভিনয় শিক্ষাশেষ করে ১৯৯৭ সালে মুম্বাই আসেন।একেবারে ছোটোখাটো চরিত্র দিয়ে বলিউডে অভিনয় শুরু করেন। রামগোপাল ভার্মার জঙ্গল ছবিতে কাজ করার পর বিশেষ পরিচিতি পান। হাঙ্গামা , চুপ চুপ কে , গরম মশালা , ফির হেরাফেরি , ঢোল সহ শতাধিক হিন্দি চলচ্চিত্রে  অভিনয় করেছেন । ম্যায় মাধুরী দীক্ষিত বাননা চাহতি হুঁ তে তার অভিনয় বিশেষ প্রশংসা লাভ করে । ম্যায় মেরি পত্নি অউর ও ছাড়াও অনেকগুলি চলচ্চিত্রে প্রধান ভূমিকাতেও অভিনয় করেছেন রাজপাল ।